‘বিশ্রামে’ থাকার কারণ খুঁজছেন মালিঙ্গা

স্পোর্টস রিপোর্ট : একটা সময় লাসিথ মালিঙ্গাকে ছাড়া চিন্তাই করা যেত না শ্রীলঙ্কা দল। সেটা এখন অতীত। বাংলাদেশ সফরের প্রাথমিক স্কোয়াডেও জায়গা হয়নি তার! কিন্তু কেন তিনি বিশ্রামে? সেটা জানার অপেক্ষায় এই পেসার।

শ্রীলঙ্কা দলের দায়িত্ব নিয়েছেন বাংলাদেশের সাবেক কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। প্রথম মিশন তার সাবেক দলের বিপক্ষেই। বাংলাদেশের মাটিতে ত্রিদেশীয় ও দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলার প্রস্তুতি হিসেবে বৃহস্পতিবার থেকে অনুশীলন শুরু করেছেন তিনি ২৩ সদস্যের প্রাথমিক স্কোয়াডের সঙ্গে। এই দলেও জায়গায় হয়নি মালিঙ্গার। যদিও অনুশীলন মাঠে এসেছিলেন তিনি। তবে ‘ক্রিকইনফো’র কাছে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বুঝিয়ে দিয়েছেন কলম্বোর অনুশীলনে এসেছিলেন মালিঙ্গা শুধুই ‘নেট বোলার’ হিসেবে।

‘আমি এসেছি, কারণ ক্রিকেট খেলা শুরু করার পর যখনই জাতীয় দলের অনুশীলন হয়েছে, তাদের প্রয়োজন পড়েছে নেট বোলারের। নেট বোলার হিসেবেই এসেছিলাম।’- ‘ক্রিকইনফো’র কাছে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কথাটা বলার সঙ্গে একটা বিষয়ে আফসোসও ঝরেছে মালিঙ্গার কণ্ঠে। একসময় শ্রীলঙ্কার সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য বোলার হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করা এই পেসারের খুব ইচ্ছা ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ খেলার। যদিও সেটা পারবেন কিনা, তা নিয়ে ঘোর সংশয় জন্মেছে মালিঙ্গার মনে।

আপাতত কারণ খুঁজছেন, কেন তিনি দলের বাইরে, ‘তারা দলে নিতে চাইলে আমি প্রস্তুত আছি। তবে কোন কারণে আমি বাইরে আছি, সেটা জানার অপেক্ষায় এখনও আছি। সাধারণত ২৫-২৬ বছরের খেলোয়াড়দের বিশ্রাম দেওয়া হয়, কারণ তাদের সামনে খেলার জন্য অনেক সময় থাকে। তবে আমার মতো বয়সী কোনও ক্রিকেটারের বিশ্রাম দেওয়ার কোনও উদ্দেশ্য আমি দেখি না।’ সঙ্গে যোগ করলেন, ‘আমরা খেলতে পারব খুব বেশি হলে আর এক বা দুই বছর; এই অবস্থায় যদি আমাদের বিশ্রাম দেওয়া হয়, তার মানে আমরা আর ক্রিকেট খেলার সুযোগ পাবো না। পয়েন্টটা তাহলে কি?’

উত্তরটা এখনও খুঁজে বেড়াচ্ছেন সেপ্টেম্বরে ভারতের বিপক্ষে শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা লঙ্কান এই পেসার। ক্রিকইনফো

Comments are closed.