মাদক একবার ছাড়তে পাড়লে যা হয়

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ ,
জানুয়ারি ৬, ২০১৮ ১:২০ অপরাহ্ণ

লাইফ স্টাইল ।। মাদকাসক্তি যুবসমাজকে ধ্বংস করে দেয়। ক্ষতি করে পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রের। এতে আসক্ত হওয়া যত সহজ, ছেড়ে দেওয়া তার চেয়েও বেশি কঠিন। তবে মানসিক শক্তিমত্তায় একবার ছাড়তে পাড়লে বেশকিছু উপকার হয়। আসুন জেনে নেই উপকারগুলো-

রাতে ভালো ঘুম
মাদক ছেড়ে দিলে আগের চেয়ে ভালো ঘুম হয়। কারণ মাদকাসক্তির কারণে ঘুমের ব্যাঘাত ঘটে। মাদকের নিকোটিন ঘুম কেড়ে নেয়। মাদক গ্রহণ বন্ধ করলে স্বাভাবিক ঘুমের চাহিদা বৃৃদ্ধি পায়।

পরিমিত খাদ্য
মাদক গ্রহণের ফলে খাবারের প্রতি অনীহা সৃষ্টি হয়। পেটে খাবার না থাকলেও পেট ভর্তি ভর্তি মনে হয়। কখনো কখনো ক্ষুধা থাকলেও খেতে ইচ্ছা হয় না। কিন্তু মাদক ছেড়ে দেওয়ার পরই খাবারের স্বাভাবিক চাহিদা অনুভূত হয়। পরিমিত খাবার খেতে সাহায্য করে।

ক্যান্সার হ্রাস
‘ধূমপান ক্যান্সারের কারণ’ স্লোগানটি মাদকের মোড়কের গায়েই লেখা থাকে। তবে মাদক ছেড়ে দিলে ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়।

ত্বকের উজ্জ্বলতা
মাদক গ্রহণের ফলে ত্বকের উজ্জ্বলতা কমতে থাকে। বিশেষ করে ধূমপানের কারণে মুখের রং কালসিটে হয়ে যায়। তাই মাদক ছেড়ে দিলে স্বাভাবিকভাবেই ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়তে থাকে।

হজম শক্তি
মাদকের ফলে ক্ষুধামন্দা ভাব সৃষ্টি হয়। মাদকের প্রভাবে গ্রহণ করা খাবার সহজে হজম হতে চায় না। তবে মাদক ছেড়ে দিলে ক্রমান্বয়ে হজম শক্তি বাড়তে থাকে।

টাকার সাশ্রয় 
অর্থের বিনিময়েই তো মাদক সংগ্রহ করতে হয়। নিয়মিত মাদক গ্রহণ করলে একটি পরিবারের ভরণ-পোষণের সমান টাকা খরচ হতে পারে। তাই মাদক ছেড়ে দিলে টাকার সাশ্রয় হবে। ফলে পরিবারে এমনিতেই স্বচ্ছলতা চলে আসে।

Comments are closed.