বিপিএম পদক পেলেন কিশোরগঞ্জের পুলিশ সুপার

মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম, কিশোরগঞ্জ ।। পেশাগত কাজের প্রতি নিষ্ঠা, সেবার স্বীকৃতি , জঙ্গি তৎপরতা কঠোরভাবে দমন ও সর্বোচ্চ সাহসিকতার কারনে বাংলাদেশ পুলিশের সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় সম্মাননা পদক বাংলাদেশ পুলিশ মেডেল (বিপিএম) পেয়েছেন কিশোরগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. আনোয়ার হোসেন খান, পিপিএম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সোমবার রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে পুলিশ সপ্তাহের এক অনুষ্ঠানে আনোয়ার হোসেন খানকে (বিপিএম-সেবা) পদক পরিয়ে দেন।

২০১৭ সালে অসীম সাহসিকতা ও বীরত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতি হিসেবে পুলিশ বাহিনীর ১৮২ জন সদস্যকে বাংলাদেশ পুলিশ পদক-বিপিএম, বিপিএম-সেবা, রাষ্ট্রপতির পুলিশ পদক-পিপিএম ও পিপিএম-সেবা প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পদকপ্রাপ্তদের মধ্যে ৩০ জন বিপিএম ও ৭১ জন পিপিএম পদক গ্রহণ করেন। এছাড়া গুরুত্বপূর্ণ মামলার রহস্য উদঘাটন, অপরাধ নিয়ন্ত্রণ, দক্ষতা, কর্তব্যনিষ্ঠা, সততা ও শৃঙ্খলামূলক আচরণের মাধ্যমে প্রশংসনীয় অবদানের জন্য ২৮ জন পুলিশ সদস্যকে বিপিএম-সেবা এবং ৫৩ জন পিপিএম-সেবা পুরষ্কার দেয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ৭ই জুলাই ঈদুল ফিতরের দিন শোলাকিয়া ঈদগাহ চেকপোস্টে জঙ্গি হামলার পর জঙ্গিদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ লড়াইয়ে সরাসরি নেতৃত্ব দেন পুলিশ সুপার মো. আনোয়ার হোসেন খান। তাঁর যোগ্য ও দক্ষ নেতৃত্বে কিশোরগঞ্জ জেলা পুলিশ অপরাধ দমন ও আইনশৃংখলা রক্ষায় উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রেখে আসছে। একজন সৎ ও পরিচ্ছন্ন ইমেজের পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবেও তাঁর যথেষ্ট সুনাম রয়েছে। এর আগে ২০১৫ সালে তিনি কর্মদক্ষতার স্বীকৃতি হিসেবে প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল (পিপিএম) লাভ করেন। কিশোরগঞ্জে যোগদানের পর থেকেই তিনি জেলার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ রেখে চলেছেন শক্ত হাতে।

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ