মুক্তিযোদ্ধাদের ন্যূনতম বয়স ১২ বছর ৬ মাস

জাতীয় ।। মুক্তিযোদ্ধা বিবেচনার ন্যূনতম বয়স কমলো। মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে নতুনভাবে অন্তর্ভুক্তির ক্ষেত্রে মুক্তিযুদ্ধের সময় (১৯৭১ সালের ৩০ নভেম্বর) বয়স ন্যূনতম ১২ বছর ৬ মাস হতে হবে। আগে এ বয়স ছিল ১৩ বছর। মুক্তিযোদ্ধা বিবেচনার ন্যূনতম বয়স পুনর্নির্ধারণ করে বুধবার পরিপত্র জারি করেছে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়। এর আগে মুক্তিযোদ্ধা বিবেচনার ন্যূনতম বয়স ১৩ বছর করে পরিপত্র জারি করেছিল মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়।

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মুক্তিযোদ্ধার সংজ্ঞা অনুযায়ী, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বাধীনতার ঘোষণায় সাড়া দিয়ে ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ থেকে ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত যেসব ব্যক্তি বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা অর্জনের লক্ষ্যে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছেন তারাই মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে গণ্য হবেন।

এর আগে মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি পেতে ১৯৭১ সালে বয়স ১৫ বছর করার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। ১৫ বছরের কম অনেক কিশোর মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিল জানিয়ে এ বিষয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের বিভিন্ন সংগঠন আপত্তি তোলে। কাদেরীয়া বাহিনীর সদস্য লালু মিয়া ১৩ বছর বয়সে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন। তিনি বঙ্গবন্ধুর হাতে অস্ত্র জমা দেন এবং বীর প্রতীক খেতাবও পান।

এর আগে মুক্তিযোদ্ধার সংজ্ঞাও নির্ধারণ করা হয় কিন্তু তা নিয়েও বিভিন্ন মহলে আপত্তি ছিল। তাই মুক্তিযুদ্ধের পর মুক্তিযোদ্ধাদের কোনো পূর্ণাঙ্গ তালিকা করতে পারেনি সরকারগুলো।

Comments are closed.