ভালুকায় অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নেই শহীদ মিনার

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ ,
ফেব্রুয়ারি ২২, ২০১৮ ৭:৫৭ অপরাহ্ণ

মোঃ তোফাজ্জল হোসেন, ভালুকা ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ।। সরকারি নির্দেশ অনুয়াযী দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অমর একুশে উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়ে থাকে। অথচ ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার ২১৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অমর একুশের মহান শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য নেই কোনো শহীদ মিনার।

উপজেলা প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, এ উপজেলায় মোট ২৬৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এর মধ্যে সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ১৬৪টি, মাধ্যমিক বিদ্যালয় ৫৯টি, মাদ্রাসা ৪০টি ও কলেজ ৫টি।

এরমধ্যে ৫২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার আছে। এসব প্রতিষ্ঠানে তারা বিভিন্ন জাতীয় দিবসে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন, সভা সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করে থাকে।

শহীদ মিনার নেই এমন একাধিক প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, প্রতিবছর ২১ ফেব্র“য়ারি আসলেই সরকারি পক্ষ থেকে চাহিদা পত্র ও আবেদন চাওয়া হয়। কিন্তু পরবর্তীতে আর কোন খবর থাকে না। শহীদ মিনার না থাকায় আমরা প্রতীকি শহীদ মিনার করে জাতীয় দিবস গুলো পালন করে থাকি।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ চাঁন মিয়া মনির জানান, ২১ ফেব্র“য়ারি আসলেই চাহিদা পত্র চাওয়া হয় । পরে আর কোন খোঁজ খবর নাই। মাধ্যমিক, মাদ্রাসা মিলিয়ে ৮৫টি প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার না থাকায় শিক্ষার্থীরা চরম বিপাকে পরে থাকে।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ শহীদুজ্জামান বলেন, ভালুকার ১৬৪টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে মাত্র ৩৩টি বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার আছে। যেসব বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নেই সেইসব বিদ্যালয়ের মানেজিং কমিটি ও আশেপাশের স্বচ্ছল ব্যক্তিদের সমন্নয়ে শহীদ মিনার করার ব্যাপারে চেষ্টা চলছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ কামাল জানান, যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার নেই। সেইসব প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার স্থাপনের জন্য স্থানীয় লোকজনের সমন্নয়ে চেষ্টা করবো। আর সরকারিভাবে করা যায় কিনা সেই ব্যাপারেও চেষ্টা করবো।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

সর্বশেষ পাওয়া