নেপালে বিমান দুর্ঘটনায় বেঁচে যাওয়া হাসি হারালেন হাতের চার আঙুল

ইমরান হোসেন আপন, সিরাজগঞ্জ ।। বিমান দুর্ঘটনায় প্রাণে বেঁচে যাওয়া ইমরানা কবির হাসির বাঁ হাতের চারটি আঙুল কেটে ফেলা হয়েছে বলে তার চিকিৎসক জানিয়েছেন।
রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) এই শিক্ষক এখন সিঙ্গাপুরের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। গত ১২ মার্চ কাঠমান্ডুতে ওই দুর্ঘটনার পর আহত যে দুই বাংলাদেশিকে সিঙ্গাপুরে নেওয়া হয়েছিল, তাদের একজন হাসি। স্বামী সফটওয়্যার প্রকৌশলী রকিবুল হাসান ঝন্টুর সঙ্গে নেপাল ঘুরতে যাচ্ছিলেন তিনি। ইউএস-বাংলার উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হলে যে ৪৯ জনের মৃত্যু হয়, তাদের মধ্যে রকিবুল একজন।
গুরুতর আহত হাসিকে নেপাল থেকে সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। ওই হাসপাতালে বার্ন ইউনিটের কনসালটেন্ট ডা. সি জ্যাকের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি।
ডা. জ্যাকের বরাত দিয়ে ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের আবাসিক সার্জন ডা. হোসেইন ইমাম বুধবার সাংবাদিকদের  বলেন, “ইমরানা কবির হাসির বাম হাতের চারটি আঙুল কেটে ফেলতে হয়েছে।
দুর্ঘটনার সময় বাঁ হাত দিয়ে তিনি হয়ত কিছু হোল্ড করে ছিলেন। বার্ন আউট হয়ে তার আঙুলে আর কিছু ছিল না, আমরা নেপালেই দেখেছি। ইমরানা রিকভার করছে, এখন তার ব্লাডে কিছু ইনফেকশন আছে, তার আরও কিছু চিকিৎসা লাগবে,”

Comments are closed.