হোসেনপুর - জুলাই ৩০, ২০১৮ ৩:৪৮ অপরাহ্ণ

হোসেনপুরে ব্রহ্মপুত্র নদের ভাঙ্গনে শতাধিক পরিবার গৃহহীন

কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরে ব্রহ্মপুত্র নদের ভাঙ্গনে সাহেবেরচর গ্রামের শতাধিক পরিবার গৃহহীন রয়েছে। নদের অব্যাহত ভাঙ্গনে সাহেবের চর গ্রামের অধিকাংশ এলাকা নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। কয়েক বছরের ভাঙ্গণে নদীর পাড়ের শতাধিক পরিবার গৃহহীন হয়ে পড়ে। যাদের অন্যত্র আবাদী জমি রয়েছে সেখানে তারা পূনরায় গৃহ নির্মাণ করে বসবাস করতে শুরু করেছে।

অপরদিকে প্রায় পঞ্চাশটি অসহায় পরিবার জায়গা জমি না থাকায় দুর্ভোগে দিন কাটাচ্ছে।

সাহেবের চর গ্রামের ফরিদ উদ্দিন জানান, ভাঙ্গনের কারনে আমার বসতভিটা কয়েকবার স্থানান্তর করতে হয়েছে। স্থানীয় আব্দুল হামিদ মাষ্টার জানান, পূর্ব পুরুষগণের কবরস্থান ও ভিটেবাড়ি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। গত বছর সাহেবের চরের একমাত্র সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায়, ফলে খোলা আকাশের নিচে কোমলমতী শিক্ষার্থীরা ক্লাস করছে। প্রাথমিক অধিদপ্তর শিক্ষার্থীদের সাময়িক ভাবে শিক্ষা দানের জন্য তিন লক্ষ টাকা অনুদান দিয়েছেন।

এলাকার গৃহহীন মানুষগুলো বর্তমানে মানবেতর জীবন যাপন করছে। ভাঙ্গনের কবলে রয়েছে সাহেবের চর গ্রামের ঐতিহাসিক শুলু শাহার মাজার, মসজিদ, কবরস্থান, বসতভিটা ও বহু ফসলি জমি। ভাঙ্গনের তীব্রতা বেশি থাকায় নতুন নতুন এলাকা নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড, সাহেবেরচর এলাকায় ভাঙ্গন রোধকল্পে ইতোমধ্যে ত্রিশ লক্ষ টাকা বরাদ্দ দিয়েছে। ভাঙ্গন রোধে বালুর বস্তা দ্বারা আটকানো হলেও শেষরক্ষা হচ্ছে না।