ক্যাম্পাস - September 4, 2018

রাবিতে খসে পড়ছে ভবনের ছাদ, আতঙ্কে শিক্ষকরা

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের আবাসিক ভবনের ছাদ খসে খসে পড়ছে। ঘটছে দুর্ঘটনা। পরিবার নিয়ে আতঙ্কে দিন কাটছেন শিক্ষকরা। এদিকে সম্প্রতি ছাদের টুকরোর আঘাতে এক শিক্ষকের ছেলে আহত হওয়ারও ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিশারিজ বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. ইশতিয়াক হোসেনের অভিযোগ, মাঝে মাঝেই ছাদের নিচের অংশ খসে পড়ে। কিছুদিন আগে আমার ছেলে শুয়ে থাকা অবস্থায় পেটের ওপর ছাদের পলেস্তারা খুলে পড়ে সে আহত হয়। গতকাল সোমবার দুপুরেই এ ঘটনা ঘটে।
গোসলের জন্য ওয়াশরুমে গেলেই খসে পড়েছে ছাদ। দুই বালতিতে করে ছাদের টুকরা গুলো ফেলে দিয়েছি। একটুর জন্য মাথার উপর পড়েনি ছাদের টুকরোগুলো বলে জানান তিনি।
বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, এখানে দোতলা, তিনতলা ও চারতলা মিলিয়ে প্রায় ৮৮টি ভবন রয়েছে। এর মধ্যে উপাচার্য, উপ-উপাচার্যের ভবনসহ এ বি সি এ তিন ক্যাটাগরির আবাসিক ভবনগুলোর ৩১৯টি বাসায় শিক্ষক-কর্মকর্তার পরিবার নিয়ে বসবাস করে আসছেন।
প্রায় প্রতিটি ভবনেই একই সমস্যা বলে জানান শিক্ষকরা।
হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য ব্যবস্থা বিভাগের শিক্ষক সোহেল মেহেদী বলেন, পুরাতন ভবনগুলো দীর্ঘদিন সংস্কার না হওয়ায় এমন সমস্যা। যাদের ভবনে এমন সমস্যা হচ্ছে তাদের পরিবারের মধ্যে একটা আতঙ্ক বিরাজ করছে।
এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রকৌশলী সিরাজুম মুনীর বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের আবাসিক ভবনগুলো পুরাতন হওয়ায় নিয়মিতই এমন ঘটনা ঘটছে। এখন প্রয়োজন ভবনের ছাদ পরিবর্তন করার। এতে বড় বাজেটের প্রয়োজন। চেষ্টা করছি যাতে ওই ভবনের ছাদগুলো পরিবর্তনের মাধ্যমে স্থায়ী সমাধানে যাওয়া যায়।

 

 

 


আরও পড়ুন

৩ Comments

  1. I just want to tell you that I am beginner to blogging and definitely enjoyed you’re web page. Probably I’m going to bookmark your blog . You certainly have fabulous articles. Regards for sharing with us your website.

Comments are closed.