‘কারাগারের ভেতর আদালত বসানো সংবিধান পরিপন্থি’

রাজনৈতিক রিপোর্ট , মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ
সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৮ ৪:২৬ অপরাহ্ণ

বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা বকশীবাজার আদালত এলাকায় জড়ো হয়ে বলেছেন, কারাগারের ভেতরে আদালত বসানো সংবিধান পরিপন্থি।

সরকারের প্রজ্ঞাপন জারি করে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে করা জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা বকশীবাজার কারা অধিদপ্তরের মাঠ থেকে কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থানান্তর করার সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করে আদালত এলাকায় জড়ো হয়েছেন তারা।

আইনজীবীরা বলছেন, আইনের বিধি বিধানের বাইরে তারা যাবেন না। যদি আদালত স্থানান্তর হয়ে থাকে তাহলে আদালতকে সেখানে উপস্থিত হয়ে বিষয়টি জানাতে হবে। তখনই কেবল তারা কেন্দ্রীয় কারাগারে যাবেন কিনা সেটি বিবেচনা করবেন।

বুধবার বেলা ১১টার দিকে বকশীবাজার আদালত এলাকায় উপস্থিত সিনিয়র আইনজীবীরা বলেন, তাদের জানামতে, এখানেই বিএনপি চেয়ারপার্সনের মামলা অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। সেই দৃষ্টিকোণ থেকেই তারা বকশীবাজারে এসেছেন।

সরকারি প্রজ্ঞাপনের বিষয়টি শুনেছেন জানিয়ে তারা অভিযোগ করেন, ওই প্রজ্ঞাপন বেআইনি, সংবিধান পরিপন্থি। এছাড়াও আদালত স্থানান্তর হলে অপর পক্ষকে আনুষ্ঠানিকভাবে জানাতে হয়। কিন্তু এখন পর্যন্ত বিএনপির আইনজীবীরা আদালতের পক্ষ থেকে কোনো আনুষ্ঠানিক নোটিস পাননি বলে অভিযোগ করেছেন।

আর এ কারণেই সবসময় যেখানে মামলার বিচারকাজ পরিচালিত হয় সেখানেই সিনিয়র আইনজীবীরা উপস্থিত হয়েছেন। আদালত তাদের কাছে এসে আনুষ্ঠানিকভাবে স্থানান্তরের বিষয় জানালে তখন আইনজীবীরা বিবেচনা করবেন নোটিসটি আইনানুগ কিনা।

বিএনপির আইনজীবীরা না গেলেও রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থানান্তরিত আদালতে পৌঁছেছেন।

এর আগে খালেদা জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া সাংবাদিকদের বলেছেন, কারাগারের ভেতর আদালত বসানো সংবিধান পরিপন্থি। তাই কেন্দ্রীয় কারাগারের ভেতর আদালত বসানো হলে তারা সেখানে যাবেন কিনা সেটা আদালত বকশীবাজারে এসে আনুষ্ঠানিকভাবে স্থানান্তরের কথা জানালে বিবেচনা করবেন তারা।

 

Comments are closed.