দেশের খবর - October 4, 2018

মীরসরাইয়ে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের মহাসড়ক অচলের ঘোষণা

সরকারি চাকরিতে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে বিদ্যমান কোটা পদ্ধতি বাতিলের প্রতিবাদে কর্মসূচির ঘোষনা দিয়েছে “আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান”- মীরসরাই উপজেলা শাখা।   কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে বিদ্যমান পরিস্থিতি নিয়ে অবস্থান কর্মসূচি, মহাসড়কে বিক্ষোভ, প্রধানমন্ত্রীকে স্মারক লিপি প্রদান এবং মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে যোগাযোগ ব্যবস্থা অচল করারও ঘোষনাও আসতে পারে বলে জানিয়েছেন নেতৃবৃন্দ।
এনিয়ে আজ বৃহস্পতিবার মীরসরাই গণপাঠাগার মিলনায়তনে এক জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে “আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান”- মীরসরাই উপজেলা শাখার সভাপতি নয়ন কান্তি ধুম বলেন, আমরা কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর সাথে একাত্বতা পোষন করে শান্তিপূর্ণ আন্দোলন কর্মসূচীর ডাক দিচ্ছি। আগামীকাল ঢাকার শাহাবাগের বিক্ষোভ ও আন্দোলন কর্মসূচীর পূর্বেই আশা করছি সরকার আমাদের দাবি সমূহ মেনে নেবেন।  তিনি বলেন, ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহাল রাখতে হবে।
বুধবার প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরি থেকে সব ধরনের কোটা বাতিলের প্রস্তাব অনুমোদন দেয় মন্ত্রিসভা। সরকারের এ সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে আমাদের এই আন্দোলন।
তিনি আরো বলেন, ‘মন্ত্রী পরিষদের সিদ্ধান্ত মানি না, মানব না’। এটা বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি বঙ্গবন্ধুর উপহার। স্বাধীনতার ৪৮ বছরে আমরা শুধু খোটা শুনেছি। নামে কোটা, কোটার সুবিধা আমাদের পরিবারগুলো ভোগ করতে পারিনি। তাহলে স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তি ক্ষমতায় থেকে সুবিধা বঞ্চিত জনগোষ্ঠীর সুবিধা নিয়ে কারা সুযোগ নিতে চায়, এ নিয়ে প্রশ্ন ছুড়ে দেন তিনি?
তিনি বলেন, আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তিকে বার বার ক্ষমতায় দেখতে চাই। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সারথি হয়ে আমরা দেশের কল্যানে নিবেদিত। সরকারকে ৩০ শতাংশ কোটা বহালের দাবিও জানান মীরসরাই শাখার সভাপতি নয়ন ধুম।
সাধারন সম্পাদক আবু জাপর বলেন, কেন্দ্রের সাথে সমন্বয় রেখে আমরা আগামি শুক্রবার (৫ অক্টোবর) মীরসরাই  গনপাঠাগারে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় সকলের সম্মতিক্রমে পরবর্তী কর্মসূচী নির্ধারন করা হবে।

আরও পড়ুন