কুলিয়ারচরে মাদকসেবী ছেলেকে পুলিশে দিল বাবা, ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৩ মাসের সাজা

মুহাম্মদ কাইসার হামিদ , ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ
অক্টোবর ৭, ২০১৮ ২:২৭ অপরাহ্ণ

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে মোবারক (২৮) নামে এক মাদক সেবীকে ৩ মাসের বিনাশ্রম সাজা দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। মাদক সেবন করে পিতা-মাতা ও আত্মীয় স্বজনরদের মারধর এবং বিভিন্ন অত্যাচারে অভিযোগে রবিবার (৭অক্টোবর) দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাউসার আজিজ এই রায় ঘোষণা করেন। মোবারক উপজেলার তারাকান্দি গ্রামের মোঃ নূরুল ইসলামের ছেলে।

মোবারকের পিতা নূরুল ইসলাম জানান, তার ছেলে মাদক সেবন করে পরিবারের লোকজনসহ আত্মীয়স্বজনদের মারধর ও অত্যাচার করার কারণে গত ১৩ সেপ্টেম্বর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর তিনি একটি লিখিত অভিযোগ করেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশে কুলিয়ারচর থানা পুলিশ মোবারককে আটক করতে গেলে শনিবার (৬ অক্টোবর) দুপুরে তারা মোবারককে আটক করে পুলিশের হাতে সোপর্দ করে। পরে রবিবার দুপুরে থানা পুলিশ মোবারককে উপজেলা নির্বাহী অফিসে হাজির করেন।

মাদক সেবন করে পিতা-মাতাকে মারধরের অভিযোগে এর আগে গত ৩০ সেপ্টেম্বর শাহীন মিয়া (১৯), দুলাল মিয়া (৩০) ও আল-আমিন (৩৫) নামে তিন মাদকসেবীকে বিভিন্ন মেয়াদে বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। ওই দিন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাউসার আজিজ মাদকসেবী শাহীনকে ১ মাস, দুলাল মিয়াকে ৬ মাস ও আল-আমিন কে ২ বছর বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন। শাহীন মিয়া উপজেলার চারারবন এলাকার মোঃ রমজান মিয়ার ছেলে, দুলাল মিয়া ডুমরাকান্দা গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে ও আল-আমিন দ্বাড়িয়াকান্দি খলিফা বাড়ীর মৃত জজ মিয়ার ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, তারা তিন জন মাদক সেবনের টাকার জন্য প্রায়ই মা-বাবাকে অত্যাচার ও নির্যাতন করার ফলে তাদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে শাহীনের মা রেহেনা খাতুন, দুলাল মিয়ার বাবা জয়নাল আবেদীন ও আল-আমিনের মা হেলেনা আক্তার উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশে কুলিয়ারচর থানা পুলিশ মাদক সেবীদের আটকের অভিযান চালালে ওই দিন পিতা-মাতা লোকজন নিয়ে মাদকসেবী সন্তানদের আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.

সর্বশেষ পাওয়া