কটিয়াদীতে কুড়িয়ে পাওয়া টাকার মালিকের সন্ধানে মাইকিং, নিস্তব্ধ এলাকাবাসী!

আতিকুর রহমান কাযিন । নিজস্ব প্রতিবেদক , মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ
অক্টোবর ২১, ২০১৮ ১০:১৩ পূর্বাহ্ণ
বর্তমানে সভ্যতার সমাজে এমন ঘটনা আসলেই খুব বিরল। এখন বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই মানুষের ব্যক্তিগত স্বভাব থাকে কোন কিছু পেলেই নিজের বলে চালিয়ে নেয়া। এমন অনেক ঘটনার যেমন নজির আছে তেমনি রয়েছে দৃষ্টান্ত।
অথচ কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার পার্শ্ববর্তী মনোহরদী উপজেলার বড়চাপা ইউনিয়নের চরকৃষ্ণপুর গ্রামের মৃত মো. তোতা মিয়ার ছেলে কুয়েত প্রবাসী মো. সুমন মিয়া এলাকায় অন্য রকম এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।
তিনি একটি ঘোষণা গত ৪ অক্টোবর তারিখে পোড়াদিয়া বাজারে কিছু টাকা পাওয়া গিয়াছে, টাকার মালিককে তার হারানো টাকা বুঝে নেয়ার জন্য অনুরোধ জানানো যাচ্ছে।’
ভিন্নধর্মী এই মাইকিংয়ে পথচারীরা থমকে দাঁড়িয়ে ঘোষণাটি শুনছেন মনোযোগ সহকারে। ইদানিং ছিনতাই, চুরি, ডাকাতি ও প্রতারণার খবর নিত্য নতুন হলেও প্রবাসী সুমন মিয়ার টাকার মালিকের সন্ধ্যানে মাইকিংয়ের খবরটি থমকে যাওয়ারি কথা।
কিন্তু এই ঘটনাটি একটু ব্যতিক্রম বলে মনে করছেন সচেতন মহল। কুড়িয়ে পাওয়া টাকা প্রকৃত মালিকের কাছে পৌঁছে দিতে নিজের টাকা ও শ্রম দুইটি জিনিসই ব্যয় করে মাইকিং করে প্রচার চালানোর ঘোষণা শুনে পথচারীদের খুবই হতবাক করেছে। কুয়েত থেকে ছুটিতে আসা মো. সুমন মিয়ার সততায় এলাকাবাসী মুগ্ধ।
এ ব্যাপারে সুমন মিয়া বলেন, ৪ মাসের ছুটি নিয়ে বাড়িতে এসেছেন তিনি। গত ৪ অক্টোবর বেলাব উপজেলার পোড়াদিয়া বাজারে গরু মহলে অনেকগুলো টাকা মাটিতে পড়ে রয়েছে দেখে- তা আমি আমার হেফাজতে রাখি এবং বাজার পরিচালনা কমিটিকে জানাই। পরে বাজার পরিচালনা কমিটির মাধ্যমে বাজারে মাইকিং করা হয়।
সুমন আরও বলেন, টাকা কুড়িয়ে পাওয়ার পর বেশ কিছুদিন অতিবাহিত হলেও মালিকের সন্ধান না পাওয়ায় মনোহরদীসহ পার্শ্ববর্তী উপজেলাগুলোতে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশায় দুটি মাইক দিয়ে প্রচার চালিয়েছি। টাকার প্রকৃত মালিককে তার সঙ্গে যোগাযোগ করে টাকা নিয়ে যাওয়ার জন্য অনুরোধ জানান তিনি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

সর্বশেষ পাওয়া