রকমারি - ডিসেম্বর ১৭, ২০১৮

প্রভুর জন্য অপেক্ষায় হাসপাতালের দরজায় ৪ কুকুর!

কুকুর কখনও বিশ্বাসঘাতকতা করে না। এমনকী বিপদের মুহূর্তে কখনও ছেড়ে চলে যায় না- এমন কথা প্রায়ই শোনা যায়। এবার তা আরও একবার প্রমাণ হল ব্রাজিলের একটি ঘটনায়।

কুকুর কখনও বিশ্বাসঘাতকতা করে না। এমনকী বিপদের মুহূর্তে কখনও ছেড়ে চলে যায় না- এমন কথা প্রায়ই শোনা যায়। এবার তা আরও একবার প্রমাণ হল ব্রাজিলের একটি ঘটনায়।

সান্তা ক্যাটারিনার হসপিটাল রিজিওন্যাল অল্টো ভ্যালেতে ভীষণ অসুস্থতা নিয়ে ভর্তি হন সিজার নামে এক তরুণ। দেখার কেউ নেই। তবে, ওই তরুণের ভর্তির সময় হাসপাতালের দরজার সামনে দাঁড়িয়েছিল ৪টি কুকুর।ওই হাসপাতালের নার্স ক্রিস ম্যামপ্রিম ফেসবুকে জানিয়েছেন, রাত যখন ৪টা, ওই জায়গা থেকে এক চুলও সরেনি কুকুরগুলো। তাদের প্রত্যেকের মুখ বিষন্ন। ফ্যালফ্যাল দৃষ্টিতে তাকিয়ে রয়েছে তারা। কুকুরদের এমন শিষ্ঠাচার দেখে অবাক হয়েছেন হাসাপতালের কর্মীরাও।

ওই কুকুরগুলোর সঙ্গে সিজারের কী সম্পর্ক?
আসলে ভবঘুরে সিজারের জীবন কাটে ফুটপাথেই। খাবার জুটলে পেট ভরে আর না হয় ক্ষুধা নিয়েই পড়ে থাকতে হয়। কিন্তু যে দিন খাবার জোটে, তার প্রথম ভাগ যায় ওই কুকুরদের জন্য। সুখে-দুঃখে সবসময়ের সঙ্গী ওই কুকুরগুলো। সিজার যখন অসুস্থ হয়ে পড়ে, কুকুরদের তত্পরতায় নাকি পথচারীরা হাসপাতালে ভর্তি করে দেয় তাঁকে।

নার্স ক্রিসে জানিয়েছেন, ভোরে কিছুটা সুস্থ হন সিজার। এরপর তাঁর কাছে কুকুরগুলোকে যেতে অনুমতি দেওয়া হয়। তিনি আরো বলেন, ওই কুকুরদের ভদ্রতা দেখে অবাক হয়েছেন সবাই। যতক্ষণ না তাদের ভেতরে ঢুকতে অনুমতি দেওয়া হয়েছে, ‘বন্ধুর’ অপেক্ষায় বাইরে চুপটি করে বসেছিল তারা। পরে, হাসপাতল কর্তৃপক্ষ থেকে সিজার এবং ৪ কুকুরকে খাবার দেওয়া হয়। সূত্র: স্টোরি পিক ডটকম।



আরও পড়ুন