আন্তর্জাতিক - জানুয়ারি ৯, ২০১৯

অমুসলিম শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দিতে ভারতের পার্লামেন্টে বিল পাস

বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তান থেকে ভারতে গিয়ে বসবাসরত অমুসলিম শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেওয়ার বিল পাস করেছে ভারতের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ লোকসভা। এর ফলে প্রতিবেশী মুসলিম দেশগুলোতে ধর্মীয় সহিংসতার শিকার হয়ে কোনও অমুসলিম ভারতে বসবাসের আবেদন করলে দেশটির নাগরিকত্ব পাওয়া যাবে। এই তালিকায় রয়েছে হিন্দু, বৌদ্ধ, জৈন, পার্সি, শিখ ও খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের সদস্যরা।

কংগ্রেসসহ কয়েকটি বিরোধী দলের বিরোধিতার মধ্যেই ভারতের লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নামের এই আইন পাস হয়। শুধু কংগ্রেস বা বামেরা নয়, উত্তরপূর্ব ভারতে বিজেপির সঙ্গে জোটবদ্ধ কয়েকটি দলও এই বিলের বিরোধিতা করেছে।

সমালোচকরা বলছেন, এই বিল সংবিধানের মূল ধারার পরিপন্থী। এ ইস্যুতে সোমবার আসামে বিজেপি সরকার থেকে সমর্থন প্রত্যাহার করে মিত্র রাজনৈতিক দল ‘আসাম গণপরিষদ’। সেখানে নাগরিকত্ব সংশোধন বিলের বিরোধিতায় সরব হয় তৃণমূল কংগ্রেসও।

মঙ্গলবার লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল উত্থাপন করেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। তিনি বলেন, এই বিল সাধারণ মানুষের জন্য রক্ষাকবচ। ভারতের সব রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের জন্য এ আইন কার্যকর করা হবে। নির্যাতিতদের বোঝা পুরো দেশ বহন করবে।

নাগরিকত্ব দেওয়ার ক্ষেত্রে সরকার ধর্মীয় ভেদাভেদ করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিরোধীরা নেতারা। জবাবে রাজনাথ সিং বলেন, ভারত ছাড়া ওদের আর কোথাও যাওয়ার জায়গা নেই।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, নাগরিকত্ব (সংশোধন) বিল-২০১৬-এর বিরুদ্ধে মঙ্গলবার উত্তরপূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলোতে দিনভর ধর্মঘট ও সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। এ বিলের বিরোধিতায় মঙ্গলবার বনধ ডাকে উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় ছাত্র সংগঠনগুলো। জায়গায় রাস্তায় টায়ার পুড়িয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে বনধ সমর্থকরা। সূত্র: এনডিটিভি, জি নিউজ।


আরও পড়ুন

২ Comments

  1. I simply want to tell you that I am newbie to blogging and site-building and seriously enjoyed your blog site. Probably I’m going to bookmark your website . You actually come with beneficial article content. Many thanks for sharing your web-site.

Comments are closed.