কিশোরগঞ্জে নতুন ঠিকানায় ‘বন্দিরা’

মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম , জেলা প্রতিবেদক কিশোরগঞ্জ
জানুয়ারি ১২, ২০১৯ ৫:০০ অপরাহ্ণ

৭১ বছর পর নতুন ঠিকানায় কিশোরগঞ্জ জেলা কারাগারের বন্দিরা। উদ্বোধনের ৩ মাস পর শনিবার (১২ জানুয়ারি) ভোর থেকে কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে নতুন কারাগারে বন্দিদের নিয়ে যাওয়া হয়।

কিশোরগঞ্জ জেলা কারাগারের জেল সুপার মো. বজলুর রশীদ মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ভোরে পুরুষ বন্দিদের স্থানান্তরের মধ্য দিয়ে নবনির্মিত কিশোরগঞ্জ জেলা কারাগারে বন্দি স্থানান্তরের কার্যক্রম শুরু হয়। ৮টি প্রিজন ভ্যানে করে কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে নবনির্মিত কারাগারে বন্দিদের নিয়ে যাওয়া শুরু হয়। দুপুর পৌনে ২টায় মহিলা বন্দিদের স্থানান্তরের মধ্য দিয়ে স্থানান্তর কার্যক্রম শেষ হয়।

মাত্র ২৪৫ জনের ধারণ ক্ষমতার পুরাতন জেলা কারাগারে রাখতে হতো ১২শ থেকে ১৪শ বন্দিকে। বর্তমানে কিশোরগঞ্জ জেলা কারাগারের বন্দির সংখ্যা ১ হাজার ৩৮৪ জন। এর মধ্যে নারী বন্দি ৩৮ জন এবং পুরুষ বন্দি ১ হাজার ৩৪৬ জন। নতুন কারাগার চালু হওয়ার মধ্য দিয়ে একটি নতুন অধ্যায়ের সূচনা হলো।

নতুন কিশোরগঞ্জ কারাগারে খোলামেলা পরিবেশে প্রায় দুই হাজার বন্দি রাখা যাবে। এখানে বন্দিদের জন্য কমসংস্থান, বিভিন্ন প্রশিক্ষণ, খেলাধুলা, চিত্তবিনোদনের ব্যবস্থাসহ সুন্দর পরিবেশ নিশ্চিত করা যাবে। এতে করে মানবেতর জীবন-যাপন থেকে রেহাই পাবে বন্দিরা।

এদিকে বন্দি স্থানান্তকে কেন্দ্র করে নেয়া হয় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। পুরাতন ও নবনির্মিত কারাগার এবং বিভিন্ন পয়েন্টে মোতায়েন ছিল শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এ বন্দি স্থানান্তরের মাধ্যমে দীর্ঘ ৭১ বছর পর নতুন ঠিকানায় যাত্রা করলো কিশোরগঞ্জ জেলা কারাগার।

তবে নবনির্মিত কারাগারটি কিশোরগঞ্জ জেলা কারাগার-১ এবং পুরাতন কারাগারটি কিশোরগঞ্জ জেলা কারাগার-২ হিসেবে কার্যক্রম পরিচালনা করবে।

কারা সূত্র জানায়, ১৯৪৮ সালে নির্মিত হয় মাত্র ২৪৫ জন বন্দি ধারণ ক্ষমতার কিশোরগঞ্জ জেলা কারাগার। জায়গা সংকুলান না হওয়ায় ধারণ ক্ষমতার ৬ গুন বন্দিকে রাখতে হতো পুরনো এ কারাগারে। ১৯৯৮-৯৯ অর্থ বছরে ৬৮.৪৬ কোটি টাকা ব্যয়ে কিশোরগঞ্জ জেলা কারাগার নির্মাণ কাজ শুরু করে গণপূর্ত বিভাগ। প্রায় ১৮ বছর পর শেষ হয় নির্মাণ কাজ। তবে দেরিতে হলেও এ অবস্থার অবসান হয়েছে। অবশেষে আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সমৃদ্ধ নতুন জেলা কারাগারে স্থানান্তর করা হলো এ কারাগারের বন্দিদের।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

সর্বশেষ পাওয়া