বিমানে দড়ি দিয়ে বেঁধে রাখা হলো মাতাল যাত্রীকে

মদ্যপান করে বিমানে উঠে হুলস্থূল কাণ্ড ঘটালেন এক যাত্রী। অন্য যাত্রীদের গালিগালাজ এবং একপর্যায়ে মারধরও করেন। শেষপর্যন্ত উপায় না পেয়ে তাকে মোটা রশি দিয়ে বেঁধে রাখা হয়। প্রবাসী ওই সিলেটির নাম জিয়া (৪০)। দীর্ঘ দশ ঘণ্টার যাত্রা শেষে উড়োজাহাজটি সিলেট পৌঁছলে নিরাপত্তাকর্মীদের সহায়তায় ওই যাত্রীকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইতোমধ্যে ওই বেঁধে রাখার ভিডিও ভাইরাল হয়ে গেছে।৩০ ডিসেম্বর বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিজি-২০২ ফ্লাইটে এ ঘটনা ঘটে। বিমানটি লন্ডনের হিথ্রো বিমানবন্দর থেকে সিলেট হয়ে ঢাকায় আসছিল। ওই যাত্রীর নাম-পরিচয় জানা না গেলেও ভিডিওতে তার কথোপকথন শুনে ধারণা করা হচ্ছে তার বাড়ি সিলেটে। বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত যুক্তরাজ্যের নাগরিক মনে হয়েছে তাকে।ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যায়, ওই যাত্রী মদ্যপ অবস্থায় মাতলামি করছেন। একপর্যায়ে তিনি বিমানের এক যাত্রীকে আঘাত করেন। পরে বিমানের কেবিন ক্রু ও যাত্রীরা মিলে তাকে রশি দিয়ে সিটের সঙ্গে বেঁধে ফেলেন।বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্যাপ্টেন মোসাদ্দিক আহমেদ ঘটনার বিষয়ে জানান, এটি অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা। যদিও বিমান ক্রুরা ধৈর্যের সঙ্গে সুকৌশলে ওই যাত্রীর মাতলামি সামাল দিয়েছেন।বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের জনসংযোগ বিভাগে মহাব্যবস্থাপক (জিএম) শাকিল মেরাজ গণমাধ্যমকে জানান, ফ্লাইট সিলেটে অবতরণ করার পর আইনশৃঙ্খলা সংস্থার কাছে তাকে সোপর্দ করা হয়।এ ব্যাপারে সিলেট বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসএস শাহাদত হোসেন আরটিভি অনলাইনকে বলেন, ৩০ ডিসেম্বর জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দিন রাতে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর কর্তৃপক্ষ যুক্তরাজ্য প্রবাসী ওই ব্যক্তিকে মাতলামির অভিযোগে আমাদের কাছে দেন। আমরা পরে তাকে কোর্টে চালান দেই।


আরও পড়ুন

২ Comments

  1. I just want to tell you that I’m very new to blogs and really enjoyed you’re blog. Most likely I’m likely to bookmark your blog post . You actually come with terrific articles. Thanks a lot for revealing your web-site.

  2. There are some attention-grabbing time limits in this article however I don’t know if I see all of them center to heart. There’s some validity but I’ll take maintain opinion till I look into it further. Good article , thanks and we would like more! Added to FeedBurner as nicely

Comments are closed.