হাতে চিপস দিয়ে অপহরণ, ২০ ঘণ্টা পর মিলল বস্তাভর্তি লাশ

প্রতিনিধি , মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ
জানুয়ারি ২২, ২০১৯ ৮:১৩ অপরাহ্ণ

কক্সবাজারের চকরিয়ায় অপহরণের ২০ ঘণ্টা পর আড়াই বছর বয়সী এক শিশুর বস্তাভর্তি লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ওই শিশুর নাম মো. আল ওয়াসীয়া।

মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে মাতামুহুরীর ব্রিজের কাছ থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহত শিশুটি চকরিয়া পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের সবুজবাগ এলাকার সাহাবউদ্দিন ও রুনা আক্তার দম্পতির ছেলে।

ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে মুন্নি আক্তার নামে এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃত মুন্নী চকরিয়া পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের বাটাখালী এলাকার খোন্দকার পাড়ার খলিলুর রহমানের মেয়ে।

নিহত শিশুর স্বজনরা জানান, সোমবার বিকালে শিশু ওয়াসীয়া ও তার চার বছর বয়সী বোন বাড়ির উঠানে খেলা করছিলো। এসময় বোরকা ও নেকাব পরিহিত এক মহিলা ওয়াসীয়ার হাতে একটি চিপস দিয়ে তাকে ফুসলিয়ে নিয়ে যায়। ছেলেকে কোথাও না পেয়ে রাতে চকরিয়া থানার ওসিকে বিষয়টি জানানো হয়। পরে পুলিশ ঘটনার সঙ্গে জড়িত অভিযোগে মুন্নি আক্তার নামে এক নারীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে। এরপর মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে মাতামুহুরী ব্রিজের নিচে একটি শিশু পড়ে থাকতে দেখে খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে ওয়াসীয়ার লাশ উদ্ধার করে।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানান, শিশু ওয়াসীয়াকে অপহরণের অভিযোগ পাওয়ার পর সারারাত পুলিশের একাধিক টিম মাঠে নামে। কিন্তু সকালে মাতামুহুরী নদীর ব্রিজের কাছ থেকে ওই শিশুর বস্তাবন্দী লাশ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে মুন্নি আক্তারকে আটক করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, কী কারণে শিশু ওয়াসীয়াকে হত্যা করা হয়েছে তা জানতে কয়েকটি বিষয়কে সামনে রেখে মাঠে কাজ করছে পুলিশ। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

২ Comments
  1. Lekisha Devargas says

    I got good info from your blog

  2. foloren torium says

    There may be noticeably a bundle to know about this. I assume you made certain good points in options also.

Leave A Reply

Your email address will not be published.

সর্বশেষ পাওয়া