ক্যাম্পাস - জানুয়ারি ২৭, ২০১৯ ৩:২৯ অপরাহ্ণ

মুক্তিযোদ্ধা কোটা পূণর্বহালের দাবিতে ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক অবরোধ

সরকারি চাকুরিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা পূণর্বহালের দাবিতে ঢাকা- রাজশাহী মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্মরা।

রোববার বেলা সাড়ে ১১ টা থেকে সাড়ে ১২ টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে টায়ার জ¦ালিয়ে অবরোধ করেন তারা। এসময় তারা ‘রক্ত চাইলে রক্ত নে, ৩০ শতাংশ কোটা দে; ৩০ শতাংশ কোটা, বহাল চাই, বহাল চাই; আর নয় ৭৫, এবার হবে ৭১; দিয়েছি তো রক্ত আরো দেবো রক্ত, রক্তের বন্যায় ভেসে যাবে অন্যায়; আমার মাটি আমার মা, পাকিস্তান হতে দেব না’ বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকে। বিদ্যালয়ের প্রায় শতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিত অবরোধ কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করে। মহাসড়কে অবরোধ করার ফলে রাস্তার পাশে দীর্ঘ যানযটের সৃষ্টি হয়। এতে কিছুটা দূর্ভোগে পড়ে যাত্রীরা। তবে যানবাহনগুলো বিকল্প রাস্তা দিয়ে চলাচল করে।

মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও প্রজন্মের পক্ষে মুখপাত্র অমর রায় শুভ বলেন,আমাদের জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭২ সালে কোটা প্রদান করেন কিন্তু তার যথাযথ বা¯তবায়ন করা হয়নি। পরবর্তীতে ১৯৯৬ সালে আওয়ামীলীগ সরকার কোটা বা¯তবায়ন করে। বর্তমান সময়ে স্বাধীনতা বিরোধীরা পুনরায় কোটা বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে, আমরা পুনরায় ৩০% কোটা পুর্ণবহাল চাই।

পরে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্মদের পক্ষ থেকে ৬ দফা দাবি উত্থাপন করা হয়।দাবিগুলো হলো, স্বাধীনতা বিরোধী ও তাদের বংশধরদের সরকারী সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি, চাকরীচ্যুত এবং নিয়োগের ক্ষেত্রে অযোগ্য ঘোষণা, সরকারী সকল চাকুরীতে ৩০% মুক্তিযোদ্ধা কোটা পূর্ণবহাল,
বিশেষ কমিশন গঠন করে প্রিলিমিনারী থেকে শতভাগ বাস্তবায়ন এবং স্বাধীনতা পরবর্তী সময় থেকে বর্তমান পর্যন্ত মুক্তিযোদ্ধা কোটা সংরক্ষিত পদগুলো বিশেষ নিয়োগের মাধ্যমে পূরণ করতে হবে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধ চেতনা বিরোধী সকল অপপ্রচার বন্ধকরতে হবে, কোটা সংস্কার আন্দোলন নামে স্ব-ঘোষিত রাজাকার ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভিসির বাসভবনে হামলাসহ সকল প্রকার অরাজকতা সৃষ্টিকারী স্বাধীনতা বিরোধীদের বিরুদ্ধে যথাযথ এবং দ্রুত আইনানুক ব্যবস্থা নিশ্চিতসহ সরকারী চাকরীতে নিয়োগের ক্ষেত্রে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও প্রজন্মের বয়সসীমা প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী
আনুপাতিক হারে বৃদ্ধি করা।

৪ Comments

Comments are closed.