দেশের খবর - ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৯

গাইবান্ধায় ভাষা শহীদদের স্মরণে শহীদ মিনার নির্মাণ কাজের উদ্বোধন

ফেব্রুয়ারী ভাষা আন্দোলনের মাস। ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি বাংলা ভাষাকে রাষ্ট্রীয় ভাষায় স্বীকৃতির দাবিতে ঢাকার রাজপথে আন্দোলনে নেমেছিল এদেশের ভাষা সৈনিকেরা।

এসময় পুলিশের গুলিতে নিহত হয় ভাষা সৈনিক সালাম বরকত,রফিক জব্বার সহ নাম না জানা অনেকেই। অবশেষে বাংলা ভাষাকে রাষ্ট্রীয় ভাষা হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়।

ভাষা শহীদদের স্মৃতিকে চির অম্লান করে রাখতে নির্মান করা হয় শহীদ মিনার।প্রতিবছর দেশে ২১ ফেব্রুয়ারি মাতৃভাষা দিবস হিসেবে পালিত হয়। পরে আন্তর্জাতিক ভাবে এই দিবসকে স্বীকৃতি প্রদান করায় ২১ ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে সারা বিশ্ব ব্যাপি পালিত হয়ে আসছে।

২১ ফ্রেব্রুয়ারী ভোর বেলা খালি পায়ে হেটে শহীদদের স্মরনের শহীদ মিনারে পুস্পমাল্য অর্পন করা হয়।শহরের অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার থাকলে ও প্রত্যান্তঞ্চলে কোন শহীদ মিনার নেই।ভাষা শহীদদের স্মরণীয় করে রাখতে গাইবান্ধার  প্রত্যান্তঞ্চলে ভাষা শহীদদের স্মরনে শহীদ মিনার নির্মান কাজের শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে।

শনিবার দুপুরে গাইবান্ধা জেলার গিদারী ইউনিয়নের প্রত্যন্ত গ্রামে সাহিত্যিক দৌলতুননেছা খাতুন আনন্দলোক বিদ্যালয় চত্বরে শহীদ মিনার নির্মান কাজের শুভ উদ্বোধন করেন গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক আবদুল মতিন।এসময় বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষার্থী ও অভিভাবকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


আরও পড়ুন