দেশের খবর - ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৯

বালিয়াকান্দিতে শিশু নির্যাতনের ঘটনায় আটক ২

রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া ইউনিয়ন এর নারুয়া বাজার থেকে, দুই শিশু মো: বিজয় মোল্যা (১০) ও মো: আশিক (৮) কে নির্যাতনের ঘটনায় অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য মো: জুলফিকার আলী (৫৫) এবং তার ছেলে মো: সুমন (২৫) কে আটক করেছে বালিয়াকান্দি থানা পুলিশ।

গত শনিবার বিকালে নারুয়া বাজার এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয়। আটকের পর তাদের কে
গতকাল সোমবার রাজবাড়ী আদালতে প্রেরন করা হয়।

এ ঘটনায় নির্যাতিত শিশু মো: বিজয় মোল্যার পিতা অত্র ইউনিয়নের বিলধামু গ্রামের মো: ফরিদ মোল্যা বালিয়াকান্দি থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

নির্যাতিত শিশু মো: বিযয় মোল্যা জানান, নারুয়া বাজারে সুমনের মোবাইল ফোন মেরামতের দোকানে তার একটি ফোন মেরামত করতে দেয়। শুক্রবার সকালে ফোনটি আনতে গিয়ে দোকানে তাকে না পেয়ে তার বাড়িতে যায়।বাড়িতেও তাকে না পেয়ে বিষয়টি সুমনের বাবা জুলফিকারের কাছে অবিহিত করে বাড়ির দিকে রওনা দেয়।

প্রতিমধ্যে তারা একটি মোবাইল কুড়িয়ে পায় এবং স্থানিয়দের বিষয়টি জানায়, একইদিন বিকালে সুমনের দোকানে ফোন নিতে এলে, জুলফিকার ও তার ছেলে সুমন তাদের দুজনকে রশি দিয়ে বেধে নারুয়া গ্রামের মাঝিপারা এলাকায় একটি ১ তলা বিল্ডিংএ নিয়ে যায়, এবং তাদেরকে বেধরক মারপিট করে এবং মোবাইল ফোন চুরি করেছি বলে স্বীকার করতে বলে। স্বীকার না করলে পুলিশে দেওয়ার ভয় দেখান তারা।

এক পর্যয়ে, বিজয়ের পিতা মো: ফরিদ মোল্যা বিষয়টি জানতে পেরে দ্রুত সেখানে এসে তাদের কে উদ্ধার করে নরুয়া বাজারের পল্লি চিকিৎসক মো শরিফুল ইসলামের কাছে নিলে তিনি তাকে প্রার্থমিক চিকিৎসা দিয়ে বালিয়াকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রেফার্ড করেন।

এদিকে ঘটনাটি জানাজানি হলে, রাজবাড়ী পুলিশ সুপার আসমা ছিদ্দিকা মিলি তাৎখনিক ভাবে তাদেরকে গ্রেপ্তার করার জন্য বালিয়াকান্দি থানার ওসি একেএম আজমল হুদাকে নির্দেশ দেন।

বলিয়াকান্দি থানার এস আই মো: বিল্লাল হোসেন জানান, দুই শিশু নির্যাতনের ঘটনায়, অবসর প্রাপ্ত সেনা সদস্য মো: জুলফিকার আলী এবং তার ছেলে মো: সুমনকে গ্রেপ্তার করে, রোববার তাদেরকে রাজবাড়ী জেলহাজতে প্রেরন করা হয়েছে।


আরও পড়ুন