রোগীর পেটে কাঁচি রেখেই পেট সেলাই করলেন চিকিৎসক!

ডেস্ক রিপোর্ট , মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ
ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৯ ১১:৪৯ পূর্বাহ্ণ

রোগীর পেটের মধ্যে ‘ডাক্তারি’ ছুরি-কাঁচি রেখেই সেলাই করে ফেলেছিলেন এক চিকিৎসক। মাস খানেক পরে এক্স-রে করাতে রোগীর পেটের ভিতরে ধরা পড়ল চিকিৎসকের অবহেলার এই নজির। এমন ঘটনা ঘটেছে ভারতে। খবর এনডিটিভির।

ঘটনার বিস্তারিত সম্পর্কে জানা যায়, হায়দরাবাদের একটি হাসপাতালে তিন মাস আগে অস্ত্রোপচারের জন্য ভর্তি হয়েছিলেন এক মহিলা। চিকিৎসকেরা অস্ত্রোপচারের সময় ডাক্তারির বিশেষ কাঁচি বা ফরসেপ ওই মহিলার পেটের ভিতরেই রেখে বেমালুম ভুলে যান। করে ফেলেন সেলাই। তিন মাস ধরে রোগীর পেটেই ছিল ওইসব ছুরি কাঁচি।

জানা যায়, হায়দরাবাদের বিখ্যাত নিজাম ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল সায়েন্সেসে ৩৩ বছর বয়সী এই মহিলা তিন মাস আগে অস্ত্রোপচারের জন্য ভর্তি হন। অস্ত্রোপচারের পর হাসপাতাল থেকে ছুটি হয়ে যাওয়ার পর বাড়িতে ফেরার পর থেকেই তিনি পেটের মারাত্মক যন্ত্রণায় ভুগতে থাকেন।

পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য ফের তাঁকে ওই হাসপাতালেই নিয়ে যাওয়া হয় এবং এক্স রে করানো হয়। এক্স রে রিপোর্ট দেখেই সবাই অবাক হয়ে যান।

রিপোর্টে দেখা যায় মহিলার পেটের মধ্যে রয়েছে একটি ডাক্তারি কাঁচি। অবিলম্বে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত শনিবার ফের অস্ত্রোপচার করে কাঁচি বের করা হয়।

এনআইএমএসের পরিচালক কে মনোহর এনডিটিভিকে বলেন, রোগী আমাদের প্রথম অগ্রাধিকার। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আমরা রোগীর স্বাস্থ্য সমস্যা মিটিয়ে দিতে ওই উপকরণটি বের করে দিচ্ছি।

সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানায়, পুলিশের কাছে, দু’জন ডাক্তারের বিরুদ্ধে ওই মহিলার স্বামী অভিযোগ দায়ের করেছেন। ক্রেতা সুরক্ষা আদালতও বিষয়টি দেখছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

সর্বশেষ পাওয়া