অষ্টগ্রাম - ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৯

সংবাদ সম্মেলনে দাবি; অষ্টগ্রামে লিপি দেবের মৃত্যু হত্যা নয়, আত্মহত্যা

কিশোরগঞ্জের অষ্টগ্রাম উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মানিক দেবের স্ত্রী লিপি দেবের মৃত্যু কোন হত্যাকান্ড নয়, বরং আত্মহত্যাজনিক কারণে হয়েছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে কিশোরগঞ্জ জেলা পাবলিক লাইব্রেরি মিলনায়তনে অষ্টগ্রাম উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের নেতারা এমন দাবি করেছেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন অষ্টগ্রাম উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সন্তোষ কুমার দেবনাথ।

লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করা হয়, গত ১৫ ফেব্রুয়ারি অষ্টগ্রাম উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মানিক দেবের স্ত্রী লিপি দেব নিজ ঘরে বিষ পান করেন। পরিবারের সদস্য ও প্রতিবেশীরা তাকে উদ্ধার করে অষ্টগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে চিকিৎসা দিলে তিনি কিছুটা সুস্থ হন। পরে লিপি দেবের বাবার বাড়ির লোকদের অনুরোধে তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। ব্রাহ্মণবাড়িয়া হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

অথচ একটি কুচক্রিমহল এটিকে হত্যাকান্ড বলে প্রচারণা চালাচ্ছে বলে সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে অষ্টগ্রাম পূজা উদযাপন পরিষদের সিনিয়র সহ সভাপতি বিশ্বনাথ দাস, কলমা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রাধাকৃষ্ণ দাস, যুগল চরণ সূত্রধর, রামচরণ দাস, পূর্ব অষ্টগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার রিপন খান, তাঁতী লীগ নেতা নিরঞ্জন দাস প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, লিপি দেব ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসির নগরের তুলশি রঞ্জন দেবের মেয়ে।


আরও পড়ুন