খেলার খবর - প্রচ্ছদ - মার্চ ১৪, ২০১৯ ৯:৫২ অপরাহ্ণ

ভুটানকে ২-০ গোলে হারিয়ে সেমিফাইনালে বাংলাদেশ

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচে আজ বৃহস্পতিবার ভুটানকে ২-০ গোলে হারিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় নারী ফুটবল দল। আর এই জয়ে তারা পৌঁছে গেছে সেমিফাইনালে।

ভুটান তাদের প্রথম ম্যাচে নেপালের কাছে ৩-০ ব্যবধানে হেরেছিল। আজ বাংলাদেশের কাছে হেরে গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছে তারা। আর সেমিফাইনাল নিশ্চিত হয়েছে নেপাল ও বাংলাদেশের। শনিবার বাংলাদেশ সময় বিকেল সোয়া তিনটায় গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে নেপালের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশের মেয়েরা।

বৃহস্পতিবার বিরাটনগরে ভুটানের বিপক্ষে প্রথমার্ধে কোনো গোলের দেখা পায়নি গোলাম রাব্বানী ছোটনের শিষ্যরা। তবে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই মেলে গোলের দেখা। ম্যাচের ৪৭ মিনিটে মনিকা চাকমার কর্নার কিক থেকে উড়ে আসা বল জটলার মধ্যে জালে জড়ান বাংলাদেশের মিসরাত জাহান মৌসুমী। আর ৮৬ মিনিটে অধিনায়ক সাবিনা খাতুনের গোলে ২-০ ব্যবধানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ।

সাবিনা খাতুনের গোলটি ছিল অসাধারণ। এ সময় ভুটানের গোলরক্ষক ডানদিকে বল বাড়িয়ে দেন সতীর্থের কাছে। সেখানে ডি বক্সের ডানদিকে বল পেয়ে যায় বাংলাদেশের তহুরা খাতুন। তিনি বল বাড়িয়ে দেন তার সামনে থাকা অধিনায়ক সাবিনা খাতুনকে। সেখান থেকে সাবিনা বল নিয়ে ভুটানের দুইজন রক্ষণভাগের খেলোয়াড়কে বোকা বানিয়ে ডি বক্সের মধ্যে ঢুকে পড়েন।  এরপর ডান পায়ের কোনাকুনি শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করে বল জালে পাঠান।

বাকি সময়ে বাংলাদেশ যেমন ব্যবধান বাড়াতে পারেনি, তেমনি ভুটানও পারেনি ব্যবধান কমাতে।

এ নিয়ে সাফে তিন-তিনবার ভুটানের বিপক্ষে জয় পেল বাংলাদেশ। ২০১০ সালে মহিলা সাফের প্রথম আসরে ভুটানকে ৯-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছিল বাংলাদেশ। ২০১২ সালে দ্বিতীয় আসরে ভুটানের বিপক্ষে পেয়েছিল ১-০ ব্যবধানের জয়। আর এবার তাদের হারাল ২-০ ব্যবধানে।

এ নিয়ে পঞ্চমবারের মতো সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে খেলতে বাংলাদেশ। আগের চার আসরে দুইবার বাংলাদেশ খেলেছিল সেমিফাইনাল। সবশেষ ২০১৬ সালে খেলেছিল ফাইনাল। ভারতের কাছে হেরে রানার্স-আপ হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছিল। গেল আসরের রানার্স-আপরা এবার কতদূর যেতে পারে দেখার বিষয়।