আন্তর্জাতিক - মার্চ ১৫, ২০১৯ ১০:৩২ পূর্বাহ্ণ

দেশের অন্ধকারতম দিনগুলোর একটি আজ : নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী

ক্রাইস্টচার্চের দুইটি এলাকার মসজিদে শুক্রবার (১৫ মার্চ) বন্দুকধারীর হামলার পর একে ‘নিউ জিল্যান্ডের অন্ধকারতম দিনগুলোর একটি’ বলে আখ্যা দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন। নিউ জিল্যান্ডে এ ধরনের হামলাকে ‘নজিরবিহীন সহিংস কর্মকাণ্ড’ বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি।

স্থানীয় সময় শুক্রবার (১৫ মার্চ) নিউ জিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুইটি মসজিদে বন্দুকধারীর হামলা হয়। শহরের হাগলি পার্কমুখী সড়ক ডিনস এভিনিউতে আল নুর মসজিদ এবং লিনউডের আরেকটি মসজিদের কাছ থেকে গুলির শব্দ শোনা গেছে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে পুলিশের বরাত দিয়ে ঘটনাটিকে ‘মারাত্মক’ বলা হয়েছে। হামলার পর পুলিশের তরফ থেকে বেশ কয়েক জন হতাহত হওয়ার কথা জানালেও এখন পর্যন্ত সংখ্যা নিশ্চিত করা হয়নি। এরইমধ্যে এক সন্দেহভাজন বন্দুকধারীকে আটক করেছে পুলিশ। আর কোনও বন্দুকধারী পালিয়ে আছে কিনা তা নিশ্চিত হতে অভিযান চলছে। হামলার পর জাতির উদ্দেশে দেওয়া বক্তব্যে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন। তিনি বলেন, ‘এ মুহূর্তে প্রাণহানির সংখ্যা আমি নিশ্চিত করতে পারব না। তবে এটা স্পষ্ট করে বলতে পারি যে এ দিনটি নিউজিল্যান্ডের অন্ধকারতম দিনগুলোর একটি।’

জাসিন্ডা আরও বলেন, নিউ জিল্যান্ডে ‘দুষ্কৃতকারীদের কোনও জায়গা নেই’। তার দাবি, অভিবাসী, শরণার্থীসহ হামলার শিকার হওয়া সবাই নিউ জিল্যান্ডের অংশ, কিন্তু দুষ্কৃতকারীরা নয়। নিউ জিল্যান্ডের সমাজে এ ধরনের সহিংস হামলার কোনও জায়গা নেই বলেও হুঁশিয়ার করেন তিনি।

জাসিন্ডা জানান, ক্রাইস্টচার্চে হামলার শিকার হওয়া মানুষদের কাছে তার মন পড়ে আছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়, কথা বলার সময় কোনওরকমে কান্না আটকে রাখছিলেন নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী।