সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় কিশোরগঞ্জের যুবকের মৃত্যু

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীর যুবক মো. সেলিম চৌধুরী (৪৩) সৌদি আরবের দাম্মাম শহরে মর্মান্তিক এক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। অর্থ উপার্জন করতে গিয়ে এখন লাশ হয়ে ফিরছেন। যে যুবক দেশে পরিবারের কাছে টাকা পাঠাতো এখন প্রিয়জন লাশের অপেক্ষায় আছেন। নিহত মো. সেলিম চৌধুরী কটিয়াদী উপজেলার বনগ্রাম ইউনিয়নের জামষাইট গ্রামের মৃত মাহমুদ আলীর ছেলে। গত মঙ্গলবার (২৬শে মার্চ) সৌদি আরব সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। রাতেই খবরটি দেশের বাড়িতে জানাজানি হওয়ার পর থেকে পরিবারটিতে চলছে শোকের মাতম।

পারিবারিক সূত্র জানায়, দেড় বছর আগে কাজের ভিসায় সৌদি আরবে গিয়েছিলেন মো. সেলিম চৌধুরী। দাম্মাম শহরে একটি পানীয় কোম্পানীর বিতরণের কাজ করতেন সেলিম।
প্রতিদিনের মতো বিতরণ কাজ শেষে মঙ্গলবার (২৬শে মার্চ) সৌদি আরব সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় গাড়িতে করে অফিসে ফেরার পথে অপর একটি গাড়ির সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই সেলিম চৌধুরীর মৃত্যু হয়। এছাড়া সেলিমের গাড়ির চালক গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

প্রবাসী হওয়ার আগে এলাকায় গানের শিল্পী হিসেবে বেশ পরিচিত মুখ ছিলেন সেলিম চৌধুরী। প্রবাসে গিয়েও তিনি সময় পেলে সংগীত চর্চা করতেন। নিহত সেলিম চৌধুরী দশ ভাই বোনের মধ্যে সবার ছোট ছিলেন। ব্যক্তিগত জীবনে বিবাহিত সেলিম চৌধুরী স্ত্রী, এক পুত্র ও এক কন্যা রয়েছে। পুত্র গুরুদয়াল সরকারি কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্র। কন্যা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ছে।

এখন নিহত সেলিম চৌধুরীর লাশ ফিরে পাওয়ার প্রতীক্ষায় প্রহর গুণছেন পরিবারের সদস্যরা।


আরও পড়ুন