রকমারি - মার্চ ৩০, ২০১৯

পুলিশকে মদ খাইয়ে চম্পট দিল কুখ্যাত সন্ত্রাসী

পুলিশকে মদ খাইয়ে মাতাল করে চম্পট দিয়েছে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত এক কুখ্যাত অপরাধী। এমন ঘটনা ঘটেছে ভারতে।

ঘটনার বিস্তারিত সম্পর্কে জানা যায়, অভিযুক্ত ওই আসামীর নাম বদন সিং ওরফে বদ্দু। ভারতের উত্তর প্রদেশে কুখ্যাত সন্ত্রাসী হিসেবে বেশ পরিচিত।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, আদালত থেকে জেলে যাওয়ার সময়ে পুলিশদের বিশেষ খানা-পিনার প্রস্তাব দেয় ওই আসামী। এতে রাজি হয় পুলিশ। মদের লোভে দেশটির মীরাটের একটি হোটেলে যায় তারা। পুলিশবাহিনী মদের নেশায় বুঁদ হতেই হোটেল থেকে চম্পট দেয় বদ্দু।

বদন সিং ১৯৯৬ সালে এক আইনজীবীকে খুনের ঘটনায় গত বছর দোষী সাব্যস্ত হয়। তার বিরুদ্ধে খুন ও ডাকাতি-সহ মোট দশটি মামলা রয়েছে।

এছাড়া ওই ৪৮ বছর বয়সী এই দুষ্কৃতীর মাথার দামও রাখা ছিল এক লাখ টাকা। গত বছর অক্টোবর মাসে ধরা পড়ে সে। এরপর একমাস মীরাট জেলে রাখার পর তাকে ফারুখাবাদের ফতেগড় সেন্ট্রাল জেলে রাখা হয়েছিল।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের খবরে আরও বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার গাজিয়াবাদ আদালতে খুনের মামলার শুনানির জন্য পুলিশের ভ্যানে করে বদনকে ফতেগড় থেকে গাজিয়াবাদ আনা হয়।

রাতে ফের জেলে ফেরার সময় বদন ও তার কয়েকজন সঙ্গী তাদের ঘিরে থাকা ছজন পুলিশের একটি দলকে মদের পার্টির লোভ দেখায়। পুলিশকর্মীরা সবুজ সংকেত দিতেই দিল্লি রোডের ধারে একটি হোটেলে গিয়ে ওঠে তারা।

জানা গিয়েছে, রাতভর সেখানে প্রচুর মদ খায় ওই পুলিশরা। এরপরই বদন সিং-এর আরও কয়েকজন অনুগামী ওই হোটেলে এসে পৌঁছায়। সারারাত ধরে চলে পার্টি। এরপর সকালে সবাই যখন নেশায় বেহুঁশ তখন পুলিশের নাকের ডগা দিয়ে পালিয়ে যায় বদন।

এরপর প্রায় তিন ঘণ্টা পর নেশার ঘোর কাটলে পুলিশ বুঝতে পারে বদন তাদের হেফাজত থেকে পালিয়েছে।

এমন ঘটনায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে ভারতে।


আরও পড়ুন