ক্যাম্পাস - এপ্রিল ১১, ২০১৯

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে নুসরাতের খুনিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি

ফেনী জেলার সোনাগাজীর মাদ্রাসা শিক্ষার্থী নুসরাতকে নির্মমভাবে পুড়িয়ে হত্যাকান্ডের সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সাধারণ শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে এ মানববন্ধন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়।

উর্দু বিভাগের চতুর্থ বষের শিক্ষার্থী মিরান শাহ মুন্না স ালনায় ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের চতুর্থ বর্ষের মোহাব্বত হোসেন মিলন সভাপতিত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক কাজী মামুন হায়দার বলেন, যে কথাটি বলা অতি জরুরী একটা ঘটনা ঘটে আমরা সোচ্চার হই মানববন্ধন করি। নতুন কোন ঘটনা আসে পুরোনো ঘটনাটি হারিয়ে যায়। সমাজে আজ এক সিরাজউদৌলাকে নিয়ে কথা হচ্ছে।বাংলাদেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হাজার হাজার সিরাজউদৌলা অবস্থান আছে। এ রকম একটি অবস্থানে দাড়িয়ে নুসরাতের যে পরিকল্পিত হত্যাকান্ড আমাদের পুরুষারী মানসিকতা তারই বহি:প্রকাশ। সে কারণে আজকের এই দিনে দাড়িয়ে নতুন করে চিন্তা করার অবকাশ তৈরি হয়েছে। নারী প্রতি মানুষের মানসিকতা পরিবর্তন হওয়া দরকার ,রাষ্ট্রীয় কাঠামো অবস্থার পরিবর্তন হওয়া দরকার । মানসিততার পরিবর্তন না হলে গা ঘেঁষে দাড়াবেন না স্লোগান দিয়ে কিংবা মানববন্ধন করেও লাভ নেই, এভাব নুসরাতরা মারা যাবে,তনু হত্যাকান্ড হবে প্রতিদিন এ রকম ঘটনা ঘটতেই থাকবে।তাই আগে আমাদের মানসিকতা পরিবর্তন হওয়া জরুরী ।

এ সময় সাধারণ শিক্ষাথীরা বলেন, দেশে প্রতিদিন এরকম ধর্ষনের ঘটনা ঘটছে কিন্ত তার সুষ্ঠ বিচার হচ্ছেনা।নুসরাত যখন শিক্ষকের নামে যৌন হয় রানি মামলা করে তখন মামলা তুলে নেয়ার জন্য চাপ দেয় কিন্তু মামলা না তুলে নেয়ার জন্য তাকে আগুন ধরিয়ে যে হত্যা করা হল।এরকম ঘটনা যৌন নিপীড়ন ঘটনা যদি ঢাবি ,রাবি কিংবা স্কুলের শিক্ষরা করে অতা আমরা মেনে নিবো না।আ্ইন শৃঙ্খরলা রক্ষা কারীদের কাছে দাবি জানাই আপনারা যদি নিরাপত্তা না দিতে পারেন তাহলে আপনাদের জায়গা থেকে পদত্যাগ করুন। সকলের একতাবদ্ধ হয়ে নারী নির্যাতন বিরুদ্ধে রুখে দাড়াই। নুসরাতে হত্যাকান্ডে সাথে জড়িতদের অতি দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি জানাচ্ছি।

উক্ত মানববন্ধনে প্রায় অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিল।

প্রসঙ্গত ,গত শনিবার নুসরাত আলিম পরীক্ষা দিতে গেলে কয়েকজন তাকে ডেকে নিয়ে শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয়, তার শরীরের প্রায় ৮০ শতাংশ পুড়ে যায়। পাচঁ দিন মৃত্যুর সাথে লড়াই করে গতকাল বুধবার রাতে ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অব¯া’য় মারা যায় নুসরাত।


আরও পড়ুন