কটিয়াদী - এপ্রিল ১২, ২০১৯

নুসরাত হত্যার প্রতিবাদে কটিয়াদীতে মানববন্ধন

আর কতো নুসরাতকে প্রাণ দিতে হবে? ফেনীর সোনাগাজির মাদ্রাসার ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি যৌন হয়রানি ও অগ্নিসংযোগে নৃশংসভাবে হত্যার প্রতিবাদে হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বিকাল ৩টায় সমকাল সুহৃদ সমাবেশের আয়োজনে কটিয়াদী কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে একটি মিছিল বের করা হয়।

পরে কটিয়াদী বাসষ্ট্যান্ডে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে দৈনিক সমকালের কটিয়াদী প্রতিনিধি সৈয়দ সালেহীন রাহাতের সভাপতিত্বে ও কটিয়াদী রক্তদান সমিতির সমন্বয়ক বদরুল আলম নাঈমের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন মুন্সী আবদুল হেকিম কারিগরি কলেজের অধ্যক্ষ ফজলুল হক জোয়ারদার আলমগীর, কটিয়াদী সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক মোজাম্মেল হক, আবদুল মান্নান মহিলা কলেজের প্রভাষক দীপা বর্মন, কটিয়াদী প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান, কটিয়াদী উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন, দৈনিক মানবজমিন কটিয়াদী প্রতিনিধি রফিকুল হায়দার টিটু, বির্তক সংগঠক রকিবুল হান্নান মিজান, সংস্কৃতিকর্মী তানিয়া সুলতানা প্রমুখ।

এসময় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন বিজয় টিভির কটিয়াদী প্রতিনিধি মো.এখলাছ উদ্দিন, ‘কটিয়াদী প্রবাহ’র সম্পাদক ও প্রকাশক এস এম নজরুল ইসলাম, রাজিব সরকার পলাশসহ আরো অনেকেই মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধনে অধ্যক্ষ ফজলুল হক জোয়ারদার আলমগীর বলেন, ফেনীর সোনাগাজির মাদ্রাসার ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি যৌন হয়রানি ও অগ্নিসংযোগে নৃশংসভাবে হত্যার ঘটনাকে আমরা তীব্র নিন্দা জানাই। পাশাপাশি এই সকল হত্যাকান্ডের নারীনির্যাতন, যৌননিপীড়নের বিরুদ্ধে আমরা প্রতিবাদ জানাই তিনি।

এদিকে দৈনিক মানবজমিন রফিকুল হায়দার টিটু বলেন, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে প্রাগতিক শিক্ষার জন্য আমরা ছেলেমেয়েকে স্কুল-কলেজে পাঠাই আর ধর্মীয় শিক্ষার জন্য মাদরাসা গুলোতে পাঠাই। আর কিছু মুখোশধারী শিক্ষক তারা সাধারণ শিক্ষার্থীদের দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের’কে এভাবে নির্যাতন নিপীড়ন, যৌন হয়রানি আর এই যৌন হয়রানি থেকে তাদের মুখ বন্ধ করতে অবশেষে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করেছে। তাদের দৃষ্টান্তমূলক দাবি জানান তিনি।

প্রভাষক দীপা বর্মন বলেন, শিক্ষকরা সমাজের সম্মানের পাত্র। তারা কেন আমাদের চোখে ঘৃনার পাত্র হবে এই প্রশ্ন রাখতে চাই? মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমাদের আবেদন। আমার সন্তান আজ লা নায় যৌন নিপীড়িনে শিকার হচ্ছে। তাকে সু-রক্ষা এবং অনেক সময় সু-রক্ষা চাইতে গিয়ে তার কোনো ব্যবস্থা হয় না। তার জন্য কোনো নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয় না। উল্টো সে মেয়ের দিকে আঙ্গুল তোলা হয়। বরং শুনতে হয় এই মেয়ের চরিত্র খারাপ। সুতরাং যারা এই সমাজের মানুষ, যাদের বিবেক বুদ্ধি জাগ্রত আছে তাদের নিয়ে এই সমাজে আমরা এই ধররেন ঘটনার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ গড়ে তুলতে হবে। আর যেন কোনো নুসরাত এমন ঘটনায় আগুনে পুড়ে মারা না যায় সেজন্য সকলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রতিবাদ গড়ে তোলার আহ্বান জানান তিনি।


আরও পড়ুন