দেশের খবর - এপ্রিল ১৯, ২০১৯ ১১:৩৫ পূর্বাহ্ণ

নকল মশার কয়েল বাজারজাত করনে পিতা-পুত্র আটক

নকল মশার কয়েল বাজারজাত করার অপরাধে শিবচরে দুই ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ।

এসময় বিপুল পরিমান নকল কয়েল পুলিশ উদ্ধার করে। বৃহস্পতিবার সকালে শিবচর পৌর এলাকার ডিসি রোড গ্রামের বাড়ি থেকে ইমরান খান ও সামাদ খানকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় সামাদ খানের আরো ২ ছেলেসহ ৪ জনকে আসামী করা হয়েছে।

ঘটনার মূল হোতা এমরান আটককৃত সামদের ছেলে। এরা দুজন পিতা-পুত্র। পুলিশ তাদের কাছ থেকে প্রায় ৩০কার্টুন নকল মশার কয়েল উদ্ধার করে। যার আনুমানিক মূল্য প্রায় অর্ধ লাখ টাকা।

আটককৃতরা হলো- শিবচর পৌর এলাকার ডিসি রোডের সামাদ খান ও তার ছেলে ইমরান খান।
এস.এস কেমিক্যাল ওয়ার্কস এর (প্রকৃত ৫৫৫ মশার কয়েল কোম্পানি) মালিক হাজী সিরাজ মিয়া ও

পুলিশ জানায়, দীর্ঘদিন ধরে ভোক্তাদের চাহিদাকে কাজে লাগিয়ে নকল করে সুপার ৫৫৫ নামের মশার কয়েল কোম্পানির স্টিকার, লগো, ট্রেডমার্ক লাগিয়ে নকল মশার করে তৈরি করে বাজারজাত করছিল চক্রটি। এরই খবর পেয়ে পুলিশ শিবচর পৌর এলাকার ডিসি রোডের একটি বাড়িতে কোম্পানির মালিককে নিয়ে হানা দেয়। এসময় নকল মশার কয়েল তৈরীর সরঞ্জামসহ প্রায় ৩০ কার্টুন নকল মশার কয়েল জব্দ করে পুলিশ। আগেও ২০০৭ সালে আটককৃত আবদুস সামাদকে পৌর এলাকার ডিসি রোড এলাকায় নকল জর্দা তৈরির কারখানা করার অপরাধে পুলিশ তার বিরুদ্ধে মামলা দেয়। তখন তাকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

শিবচর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাকির হোসেন জানান, শিবচর উপজেল্রা যাদুয়ার চর এলাকার একটি বাড়িতে নকল মশার কয়েল গুদামজাত করা হয়েছে বলে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠাই। পুলিশ গিয়ে হাতেনাতে নকল মশার কয়েল জব্দ করে। এ ঘটনার মূল হোতা ইমরান খান ও সামাদ খানকে আটক করা হয়। এ ব্যাপারে শিবচর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।