করিমগঞ্জ - এপ্রিল ২২, ২০১৯

করিমগঞ্জে রাস্তার বেহাল দশা

কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ উপজেলার নোয়াবাদ ইউনিয়নের বোর্ড বাজার হইতে হালগড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পর্যন্ত আড়াই কিলোমিটার কাঁচা রাস্তার বেহাল দশায় চরম দুর্ভোগে এলাকাবাসী।

এই আড়াই কিলোমিটার রাস্তায় চলাচল করে ৫টি গ্রামের কয়েক হাজার লোকসহ আরও অনেকেই। এই পাঁচ গ্রামে তিনটি প্রাথমিক বিদ্যালয়, একটি কমিউনিটি ক্লিনিক ও ১৫টি মুরগীর বাণিজ্যিক খামার রয়েছে। বর্ষকালে এই রাস্তার অবস্থা এতটাই খারাপ হয় যে, ছাত্র-ছাত্রী স্কুলে যাওয়া আসা, গ্রামবাসীর কৃষি উৎপাদিত পণ্য বাজারজাত করা, অসুস্থ্য রোগীদের জরুরী হাসপাতালে নেয়া উঠে খুব কষ্টকর। এমনকি মসজিদে নামায পড়তে যাওয়াও হয়ে উঠেনা এলাকাবাসীর। এলাবাসী জানায় এই রাস্তাটি পাকা না হওয়াতে আমরা নিত্যদিন চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছি।

নোয়াবাদ ইউনিয়রেন চেয়ারম্যান রুহুল আমিন কাজী জানান, রাস্তাটি অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এম.পি সাহেবকে পাকা করার জন্য বলা হয়েছে। তিনি আশ্বাস দিয়েছেন খুব শীঘ্রই উক্ত রাস্তার কাজ শুরু হবে। আমার জানা মতে রাস্তাটি টেন্ডারের অপেক্ষায় আছে।

করিমগঞ্জ উপজেলা সহকারী প্রকৌশলী মোঃ করিম মুঠো ফোনে জানান, এই রাস্তার জন্য এমপি সাহেব ডিও লেটার দিয়েছেন এবং ৬০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ পাওয়া গেছে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে দুই মাসের মধ্যেই টেন্ডার হয়ে কাজ শুরু হবে।


আরও পড়ুন