কিশোরগঞ্জ সদর - এপ্রিল ২৪, ২০১৯ ৩:১১ অপরাহ্ণ

ঢাকায় নার্সকে যৌন হয়রানি, ডাঃ আমীরুলের বিচার দাবীতে কিশোরগঞ্জে মানববন্ধন

ঢাকা উত্তরায় অবস্থিত কুয়েত বাংলা মৈত্রী সরকারি হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ আমিরুল হাসান কর্তৃক কর্তব্যরত সিনিয়র স্টাফ নার্সকে যৌন হয়রানি ও প্রাণনাশের হুমকির প্রতিবাদে ২৪ এপ্রিল (বুধবার) কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা হাসপাতালের প্রধান ফটকে সকাল ১০টা হতে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন ও বিক্ষোভ পালন করেছে বাংলাদেশ নার্সেস এসোসিয়েশন( বিএনএ) কিশোরগঞ্জ জেলা শাখা।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ নার্সেস এসোসিয়েশন (বিএনএ) কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি মোঃ আব্দুস ছালাম ভূঁইয়া, সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আব্দুল ওয়াহাব, সাধারণ সম্পাদক মোঃ ওমর ফারুক, কোষাধ্যক্ষ আশেক মিয়া, সদর হাসপাতালে সেবা তত্ত্বাবধায়ক নাজবীনা খাতুন, উপ সেবা তত্ত্বাবধায়ক শাহিদা খাতুন, নার্সিং ইনস্টিটিউটের ছাত্র ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক মোঃ উজ্জল মিয়া, স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান মোসাম্মৎ মিলন খাতুন, সিনিয়র স্টাফ নার্স মোঃ আব্দুল হালিম তালুকদার, মোঃ ফরিদ উদ্দিন, মোঃ রাজিব মিয়া, তামিম মাহমুদ ও মোসাম্মৎ কামরুন নাহার প্রমুখ।

বক্তাগণ তাদের বক্তব্যে বলেন- কুয়েত বাংলা মৈত্রী সরকারি হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ আমিরুল হাসান কর্তব্যরত স্টাফ নার্সদেরকে বিভিন্ন সময় যৌন হয়রানি করে থাকেন, গত ২০ এপ্রিল কর্তব্যরত সিনিয়র স্টাফ নার্সকে যৌন হয়রানি ও প্রাণনাশের হুমকিতে ফুঁসে উঠে বাংলাদেশ নার্সেস এসোসিয়েশন।

এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার জন্য কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক উক্ত হাসপাতালের পরিচালককে দ্রুত অপসারণ ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি এবং ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ইন্টার্নি চিকিৎসক কর্তৃক নার্সিং কর্মকর্তাদের শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদে আজকের এই কর্মসূচি।

বক্তাগণ জানায়, আমাদের এই দাবি মেনে না নেওয়া হলে আরো কঠিন হতে কঠোরতম কর্মসূচি গ্রহণ করব। এ সময় মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেন জেলা উপজেলা নার্সেস অ্যাসোসিয়েশনের ১৭৮ জন সদস্য ও জেলা নার্সিং ইনস্টিটিউটের ২২৫ জন ছাত্র-ছাত্রী।