কিশোরগঞ্জে ই-ট্রাফিক উদ্বোধন ও ট্রাফিক সেবা পালন

কিশোরগঞ্জ জেলা পুলিশের আয়োজনে শনিবার (২৭ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০টায় শহরের বটতলা মোড় হইতে ই-ট্রাফিক উদ্বোধন এবং ট্রাফিক সেবাপক্ষ ২০১৯ পালন উপলক্ষে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে বটতলা ময়দানে বেলুন উড়িয়ে আলোচনা সভায় মিলিত হয়।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী। ই-ট্রাফিক উদ্বোধন এবং ট্রাফিক সেবাপক্ষ ২০১৯ উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ (বিপিএম বার)।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অনির্বাণ চৌধুরীর সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সদ্য পদোন্নতি প্রাপ্ত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাজমুল ইসলাম সোপান।

বক্তব্য রাখেন- কিশোরগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কাজী শাহিন খান, সিনিয়র সাংবাদিক সাইফুল হক মোল্লা দুলু, আলাম সারোয়ার টিটু, জেলা ট্রাফিক প্রশাসনের টি আই ওয়ান এম এ করিম, জেলা বিআরটিএ’র সহকারী পরিচালক শফিকুল আলম সরকার, জেলা পরিবহন মালিক সমিতির সদস্য সচিব রায়হান শুভ্র শাহিন প্রমুখ।

বক্তাগণ বলেন চালক মালিকদের হয়রানি থেকে মুক্তি ও সেবা দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার জন্যই ই-সেবার কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে, এখন থেকে যেকোন চালক মালিক দেশের যেকোন প্রান্ত থেকে ই সেবার মাধ্যমে তাদের তথ্য ও কাগজপত্র সংগ্রহের সুযোগ পাবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ, কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু বক্কর সিদ্দিক, জেলা পরিবহন মালিক সমিতির কর্মকর্তা, জেলা শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ, ব্যাটারি চালিত ইজি বাইকের সদস্যবৃন্দ, ইউসিবি ব্যাংকের কর্মকর্তা, ডিবি ডিএসবি সিআইডি ট্রাফিক সহ জেলা পুলিশের দুই শতাধিক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

আলোচনা সভা শেষে মালিক চালক ও পথচারীদের মধ্যে ই ট্রাফিক ব্যবস্থাপনার সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করা হয় এবং তাৎক্ষণিক একজন মোটরবাইক চালককে ড্রাইভিং লাইসেন্স না থাকায় লাইসেন্সের জন্য ই-সেবার মাধ্যমে টাকা পরিশোধ করার সুযোগ দেওয়া হয়।