ইটনা - এপ্রিল ৩০, ২০১৯

ইটনায় ট্রলিতে ধান আনাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষে নিহত১ আহত ৩৫

কিশোরগঞ্জ জেলার ইটনা উপজেলার মৃগা ইউনিয়নের গজারিয়াকান্দা গ্রামে হাওড় থেকে ট্রলিগাড়িতে করে বোরো ধান আনাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে নিহত-১ আহত-৩৫। নিহতের নাম নূর জাহান(৩৫)।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সোমবার সকালে গজারিয়া গ্রামের মজিবুর মিয়া হাওর থেকে ধান কেটে ট্রলিগাড়ি করে বাড়ীতে নেওয়ার সময় রাস্তায় প্রতিবেশী মিষ্টার মিয়ার গোবরের চটার (এক ধরনের জ্বালানি) উপর চাকা ওঠে যায় এ নিয়ে তর্ক বিতর্কের এক পর্যায়ে উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে পুরো এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়।

এ সময় উভয় পক্ষের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষে মজিবুর মিয়ার পক্ষে আনোয়ার(৩০), জসিম(৩৫), শরীফ(৩৩), শামীম(১৫), সুমন(২২), শাহীন(২৫), জয়নাল(৩৫), জামির(২৫), শাকিল(২০) ও মিষ্টার মিয়ার পক্ষে আজিজুল(২৩), নাদিফ(২০) আবুল হোসেন(১৭), আবু বক্কর(১৮), জমিলা(৩৫), নূর জাহার(৪৫), জাহেদ আলী(৩৫), নাজমুল(১৯), সালাউদ্দিন(২০), মন্নান(৪০), রুবেল(৩০), দিলু(৪০), মহন(২০), রহমত উল্লাহ(১২) দেলোয়ার হোসে(৩৫), আনোয়ার(৩০), গোলাম হোসেন(২৫), জামাল হোসেন(৩৫), নূরুল হক(৪০), আয়েশা(৫০), রেহেনা(৩০), ইকরাম হোসেন(১৯), খাদিজা(১৫) আহত হয়। আহতদেরকে পার্শ্ববর্তী হবিগঞ্জ জেলার আজমিরীগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে মজিবুর পক্ষের গজারিয়াকান্দা গ্রামের ফয়জুর রহমানের স্ত্রী নূর জাহান(৩৫)কে আশংকা জনক অবস্থায় সিলেট উসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সোমবার রাত ৯টার সময় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

ইটনা থানার অফিসার ইনচার্জ মুর্শেদ জামান বিপিএম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গজারিয়াকান্দা গ্রামে এসআই ফারুক আহমেদের নেতৃত্বে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে ঐ এলাকার আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি আমাদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত খুনের মামলার প্রস্তুতি চলছে।


আরও পড়ুন