চলন্ত বাসে নার্সকে গণধর্ষণশেষে হত্যার প্রতিবাদে কিশোরগঞ্জে মানববন্ধন

চলন্ত বাসে নার্স তানিয়াকে গণধর্ষণশেষে হত্যার প্রতিবাদে কিশোরগঞ্জে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে শুক্রবার সকালে জেলা শহরের কালিবাড়িস্থ ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনের আয়োজন করে ভোরের আলো সাহিত্য আসর, হোমিওপ্যাথিক ফোরাম ও আকুপ্রেসার গবেষণা সোসাইটি।

মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন ভোরের আলো সাহিত্য আসরের সভাপতি নাট্যকার মোঃ আজিজুর রহমান। বক্তব্য রাখেন সংগঠনের প্রধান পৃষ্টপোষক বীরমুক্তিযোদ্ধা মোঃ নিজাম উদ্দিন, প্রতিষ্ঠাতা মোঃ রেজাউল হাবীব রেজা, সাধারণ সম্পাদক আমিনুল হক সাদী, সহসাধারণ সম্পাদক শফিক কবীর,সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুকুজ্জামান,প্রচার সম্পাদক আলী রেজা সুমন, নারী বিষয়ক সম্পাদক সুবর্ণা দেব নাথ, হোমিওপ্যাথিক ফোরামের সভাপতি এম এ হালিম তালুকদার,সাধারণ সম্পাদক ডাঃ মোবারক হোসেন খান,ডাঃ নাজনীন আক্তার, সহকারী সমন্বয়ক আবু সাইদ, উপদেষ্টা লায়ন এস এম জাহাঙ্গীর আলম, সাংবাদিক মতিউর রহমান, মোঃ শহীদুল্লাহ,সাংস্কৃতিক সম্পাদক নীরব রিপন, সহ প্রচার সম্পাদক জহিরুল হাসান রুবেল, সহসাংগঠনিক সম্পাদক রেহান উদ্দিন রেহান, অ্যাকুথেরাপিষ্ট এমদাদ হুসাইন, মাহমুদ, শিল্পী সরলা আক্তার, রিমা আক্তার, লেখক নকীব হাসান প্রমুখ। পরে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। বক্তারা চলন্ত বাসে নার্স তানিয়াকে গণধর্ষণশেষে হত্যার প্রতিবাদ করেন এবং প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে দোষীদের ফাঁসির দাবি জানান।

প্রসঙ্গত রাজধানী ঢাকায় ইবনে সিনা হাসপাতালে কর্মরত নার্স তানিয়া গত সোমবার বিকালে নিজ বাড়িতে আসার জন্য ঢাকার মহাখালী বাস টার্মিনাল থেকে স্বর্ণলতা পরিবহনের একটি বাসযোগে রওয়ানা হন। বাসটি কিশোরগঞ্জ-ভৈরব সড়কের বাজিতপুর উপজেলার পিরিজপুর ইউনিয়নের বিলপাড় গজারিয়া জামতলী নামক স্থানে পৌঁছলে বাসের চালক ও সহকারীসহ অন্যান্যরা তাকে ধর্ষণ করে বলে চলন্ত বাস থেকে ফেলে দেয়ার অভিযোগ উঠে। ভৈরব-কিশোরগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কে ঐ এলাকা থেকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধারের পর রাত পৌনে ১১ টার দিকে তানিয়াকে কটিয়াদি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।