জাতীয় - মে ১২, ২০১৯

ভাতা পাচ্ছেন হাওর, দ্বীপ বা চর এলাকার সরকারি চাকরিজীবীরা

দেশের দুর্গম এলাকায় কর্তব্যপালনরত সরকারি চাকরিজীবীদের বিশেষ ভাতা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। বিশেষ করে হাওর, দ্বীপ বা চর এলাকার ১৬টি উপজেলার সরকারি চাকরিজীবীরা মাসিক ভাতা পাবেন।

এ বিষয়ে গত রোববার অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। এতে বলা হয়েছে, প্রজ্ঞাপন জারির দিন থেকেই নতুন এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।

প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী গ্রেড ভেদে মাসিক সর্বোচ্চ পাঁচ হাজার এবং সর্বনিম্ন এক হাজার ৬৫০ টাকা ভাতা দেওয়া হবে। ২০১৫ সালের জাতীয় বেতন কাঠামো অনুযায়ী এসব ভাতা নির্ধারণ করা হয়েছে।

বিশেষ এ ভাতার আওতায় কিশোরগঞ্জের ইটনা, মিঠামইন ও অষ্টগ্রাম, চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ, কক্সবাজারের কুতুবদিয়া, নোয়াখালীর হাতিয়া, সিরাজগঞ্জের চৌহালী, কুড়িগ্রামের রৌমারী ও চর রাজিবপুর, পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী, ভোলার মনপুরা, সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা, শাল্লা ও দোয়ারাবাজার, হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জ এবং নেত্রকোনার খালিয়াজুরী উপজেলা অফিসে অর্থ বিভাগের প্রজ্ঞাপনটি পাঠানো হয়েছে। অর্থাৎ এসব এলাকায় এ ভাতা কার্যকর করা হবে।

অর্থ বিভাগের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, গ্রেড ৭ ও তার উপরের গ্রেডের কর্মকর্তারা চর এলাকায় সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা ভাতা পাবেন। গ্রেড ৮ এর কর্মকর্তারা পাবেন ৪ হাজার ৬০০ টাকা। গ্রেড ৯ এর কর্মকর্তারা মাসিক ৪ হাজার ৪০০ টাকা ভাতা পাবেন। একইভাবে গ্রেড ১০ এর কর্মকর্তারা ৩,২০০ টাকা, ১১ গ্রেডে ২,৫০০ টাকা, ১২ গ্রেডে ২,২৬০ টাকা, ১৩ গ্রেডে ২,২০০ টাকা, ১৪ গ্রেডে ২,০৪০ টাকা, ১৫ গ্রেডে ১,৯৪০ টাকা, ১৬ গ্রেডে ১,৮৬০ টাকা, ১৭ গ্রেডে ১,৮০০ টাকা, ১৮ গ্রেডে ১,৭৬০ টাকা, ১৯ গ্রেডে ১,৭০০ টাকা এবং ২০ গ্রেডের কর্মকর্তারা ১,৬৫০ টাকা করে মাসিক ভাতা পাবেন।


আরও পড়ুন