রাজনীতি - জুন ৫, ২০১৯

ঈদে যা খাবেন খালেদা জিয়া

দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে কারাবন্দি আছেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। অসুস্থ হওয়ায় বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি। অন্য বন্দিদের মতো তাকেও খাবার সরবরাহ করবে কারা কর্তৃপক্ষ। পায়েস, সেমাই ও মুড়ি খেয়ে প্রাক্তন এই প্রধানমন্ত্রীর দিন শুরু হবে।

মঙ্গলবার রাতে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার মাহবুব আলম বলেন, ‘একজন বন্দির মতো খালেদা জিয়া জেল কোড অনুযায়ী খাবার পাবেন। তবে ঈদের দিন অনুমতি সাপেক্ষে পরিবারের সদস্যরা তার সঙ্গে দেখা করতে পারবেন। বেগম জিয়ার জন্য খাবারও নিয়ে আসতে পারবেন। অবশ্য কারা কর্তৃপক্ষ সেসব খাবার পরীক্ষা-নিরীক্ষা করবে।’

কারাগার সূত্র বলছে, ঈদের দিন সকালে খালেদা জিয়াকে ঢাকা কেন্দ্রীয় (কেরানীগঞ্জ) কারাগারের কারারক্ষীদের তৈরি পায়েস, সেমাই ও মুড়ি দেওয়া হবে। তবে তার খাবার তৈরি হবে চিকিৎসকের পরামর্শ ও ডায়েট চার্ট অনুযায়ী। দুপুরে ভাত অথবা পোলাও রাখা হয়েছে। এ দুটির মধ্যে তিনি যেটি খেতে চান সেটি আগে থেকে কারাগারে রান্না করা হবে। ভাত অথবা পোলাওয়ের সঙ্গে তার জন্য বরাদ্দ রয়েছে ডিম, রুই মাছ, মাংস আর আলুর দম। রাতে পোলাও এর সঙ্গে গরু অথবা খাসির মাংস, ডিম, মিষ্টান্ন, পান-সুপারি এবং কোমল পানীয় দেওয়া হবে। এসব খাবারের বাইরে খালেদা জিয়া অন্য কোনো খাবার খেতে চাইলে তাও কারা কর্তৃপক্ষকে অবহিত করতে পারবেন।

কারাগার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, গত ঈদে খালেদা জিয়া পুরনো ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের কারাগারে ঈদ করলেও এবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকায় তাকে এখানেই ঈদ করতে হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে তিনি কারাবন্দি আছেন।


আরও পড়ুন