আখাউড়ায় গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার উত্তর ইউনিয়নের আজমপুর রেলওয়ে কলোনির বাসিন্দা হারিজ মিয়ার স্ত্রী সুরাইয়া বেগম (২০) নামে এক গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। শনিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার উত্তর ইউনিয়নের আজমপুর রেলওয়ে কলোনী এলাকার একটি বাসা থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় সুরাইয়া’র লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
নিহত সুরাইয়া বেগম আখাউড়া দক্ষিণ ইউনিয়নের সাতপাড়া গ্রামের মোঃ জুরুল হকের মেয়ে। এ ঘটনার পর থেকে তার স্বামী ও পরিবারের লোকজন পলাতক রয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সকালে স্থানীয় লোকজন হারিছ মিয়ার ঘরে ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

এব্যাপারে দক্ষিণ ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য মো: ফালু মিয়া বলেন, নিহত সুরাইয়া বেগমের পিতা জুরুল হক আমাকে বলেছেন তার মেয়েকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে রেখেছে। সে আত্মহত্যা করেনি।

আখাউড়া থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক মো. নুরে খোদা সিদ্দীকি জানান, নিহতের লাশ উদ্ধারপূর্বক জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে জানা যাবে এটি হত্যা নাকী আত্মহত্যা।


আরও পড়ুন