বসে বসে শ্রীলঙ্কার ২ পয়েন্ট

ক্রিকেট বিশ্বকাপ বাদ দিয়ে ‘বৃষ্টির বিশ্বকাপ’ বললেও ভুল হবে না! ইংল্যান্ডের আসরে এখন পর্যন্ত তিন ম্যাচ ভেসে গেছে বৃষ্টিতে। এজন্য ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলকে (আইসিসি) পড়তে হচ্ছে কঠিন সমালোচনার মুখে। যদিও বৃষ্টিকে আশীর্বাদই ভাবতে পারে শ্রীলঙ্কা। বসে থেকে যে তারা পেয়েছে ‍২ পয়েন্ট!

বিশ্বকাপ শুরুর আগে শ্রীলঙ্কার অবস্থা ছিল বড়ই করুণ। লিগ পর্বে কয়টি ম্যাচ জিততে পারবে, সেই আলোচনাতেই ছিল দিমুথ করুণারত্নেরা। অথচ ৪ ম্যাচ শেষে সেই দলটিই ৪ পয়েন্ট নিয়ে এখন তালিকার পঞ্চম স্থানে। যার ২ পয়েন্ট পেতে কোনও কষ্টই করতে হয়নি, মাঠের বাইরে বসে থেকেই পেয়ে গেছে।

৪ জুন সবশেষ মাঠে নেমেছিল শ্রীলঙ্কা। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওই খেলায় এবারের বিশ্বকাপের প্রথম জয় পায় লঙ্কানরা। এরপর আর মাঠে না নামলেও নামের পাশে যোগ হয়েছে ২ পয়েন্ট। বৃষ্টিতে তাদের সবশেষ দুই ম্যাচে খেলা তো দূরে থাক, টসই করা হয়নি!

সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সে ব্রিস্টলের বৃষ্টিতে লাভই হয়েছে শ্রীলঙ্কার। এখানেই তাদের দুটো ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়েছে। পাকিস্তানের বিপক্ষে না খেলে ১ পয়েন্ট পাওয়ার পর মঙ্গলবার বাংলাদেশের মুখোমুখি হয়েছিল। কিন্তু বৃষ্টির দাপটে স্থানীয় সময় ২টার দিকে খেলা পরিত্যক্ত হলে আবারও ১ পয়েন্ট পায় লঙ্কানরা। পাকিস্তান ম্যাচের মতো বাংলাদেশের বিপক্ষেও টস করতে পারেনি তারা।

টানা দুই ম্যাচ মাঠের বাইরে থাকায় লম্বা বিরতিতে শ্রীলঙ্কার খেলোয়াড়রা। ১৫ জুন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পরের ম্যাচে যদি বৃষ্টি বাগড়া না দেয় তাহলে ১২ দিন পর মাঠে নামার সুযোগ পাবে তারা।

না খেলে ২ পয়েন্ট পাওয়া শ্রীলঙ্কা ১৯৯৬ সালের বিশ্বকাপের স্মৃতি মনে করিয়ে দিচ্ছে। সেবার ভারত-পাকিস্তানের সঙ্গে যৌথ আয়োজক থাকা এই দলটি ক্রিকেট বিশ্বকে চমকে দিয়ে জিতে নিয়েছিল বিশ্বকাপ। কাকতালীয়ভাবে সেবারও তারা দুই ম্যাচ না খেলে পেয়েছিল পয়েন্ট! অবশ্য কারণটা ছিল ভিন্ন। বৃষ্টিতে নয়, ‘ওয়াকওভার’-এ দুই ম্যাচে পূর্ণ ৪ পয়েন্ট পেয়েছিল লঙ্কানরা। নিরাপত্তা শঙ্কায় কলম্বোয় খেলতে যায়নি অস্ট্রেলিয়া ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

সেবারের সঙ্গে এবারের বিশ্বকাপ মেলানোর সুযোগ নেই। এরপরও বৃষ্টির আশীর্বাদে সেমিফাইনালে খেলার আশা কিন্তু উজ্জ্বল হচ্ছে শ্রীলঙ্কার!


আরও পড়ুন