কিশোরগঞ্জে ভাইরাল হওয়া সেই রাস্তাটি অবশেষে আলোর মুখ দেখল

কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ উপজেলার মুক্তিযুদ্ধের তীর্থভুমি ‘টামনী আকন্দ পাড়া’র ভাইরাল হওয়া সেই রাস্তাটির একাংশ অবশেষে আলোর মুখ দেখল। ১৯৭১ সালে যে গ্রামটি থেকে ১৮জন মুক্তিযোদ্ধা অংশগ্রহন করে স্বাধীনতার সূর্য ছিনিয়ে এনেছিল, সেই গ্রামটির রাস্তার এমন বেহাল অবস্থা দেখে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও সাবেক শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রী জনাব মুজিবুল হক চুন্নু নিজ পায়ে হেঁটে গ্রামটি পরিদর্শন করেন এবং আগামী বর্ষার আগেই গ্রামের রাস্তাটি পাকা করার প্রতিশ্রুতি দেন গ্রামবাসীকে।

প্রতিশ্রুতি মোতাবেক আজকে রাস্তাটি একাংশ পাকা সড়কে উন্নিত হওয়ার কাজ শুরু হল। টামনী আকন্দ পাড়া গ্রামের জীবিত মুক্তিযোদ্ধারা সহ প্রতিটি মানুষ আজ আনন্দিত। সেই সাথে তাদের দাবী, সদর ঘাটে নবনির্মিত সেতু হতে দক্ষিণ টামনী আকন্দ পাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয় হয়ে গুজাদিয়ার সংযোগ সড়ক এবং মুক্তিযোদ্ধা জনাব গিয়াস উদ্দিন সাহেবের বাড়ি হতে মুনসী বাড়ির সংযোগ সড়ক পর্যন্ত রাস্তাটি দ্রুত পাকা করে সংসদ সদস্যের সম্পুর্ন প্রতিশ্রুতি যেন বাস্তবায়ন করা হয়।

টামনী আকন্দ পাড়া’র সকল মুক্তিযোদ্ধা, নতুন প্রজন্মের সংগঠন TADC, অনলাইন ভিত্তিক সামাজিক গ্রুপ ‘আমাদের টামনী আকন্দ পাড়া’ ও এই গ্রামের অনলাইন এক্টিভিটিস সহ সবাই কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন কিশোরগঞ্জ ৩ আসনের সংসদ সদস্য জনাব মুজিবুল হক চুন্নু ও গুজাদিয় ইউনিয়নের সম্মানিত চেয়ারম্যান জনাব রফিকুল ইসলাম রফিকের প্রতি।

উল্লেখ, গত বছর কিশোরগঞ্জের অনলাইন গ্রুপ গুলোতে ‘আর কতদিন???’ শিরোনামে টামনী আকন্দ পাড়া’র রাস্তা নিয়ে এটি পোস্ট হলে তা ভাইরাল হয় এবং স্থানীয় জনপ্রতিনিধি সহ তা প্রশাসনের দৃষ্টিতে আসে।


আরও পড়ুন