আর্জেন্টিনার জয়ের দিনে মেসির লাল কার্ড!

কোপা আমেরিকায় রেফারিংয়ের সমালোচনায় ছিলেন লিওনেল মেসি। সেই মেসিই তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়লেন ক্যারিয়ারে দ্বিতীয়বারের মতো। যদিও এমন দিনে তার দল ২-১ ব্যবধানে হারিয়েছে চিলিকে।

ম্যাচের প্রথমার্ধ থেকেই ছিল উত্তেজনা। এমন উত্তেজনার সমান্তরালে আক্রমণটাও করে যাচ্ছিল মেসিরা। যার ফল ১২ মিনিটে এগিয়ে যায় তারা। মেসির দেওয়া দ্রুত গতির ফ্রি কিক থেকে জালে বল পাঠান আগুয়েরো। ব্যবধান বাড়তেও সময় লাগেনি মেসিদের। ২২ মিনিটে দিবালার গোলে স্কোর লাইন ২-০। মেসি তৃতীয় গোলের সুযোগ করে দিয়েছিলেন দিবালাকে। কিন্তু জুভেন্টাস স্ট্রাইকার খুব বেশি বাইরে পাঠিয়ে দেন বল।

অবশ্য বল দখলের লড়াইয়ের সঙ্গে ফাউলের ঘটনাও ঘটেছে সমান তালে। বিরতির আট মিনিট আগে তেমন ঘটনায় ঘটে অঘটন। বাজেভাবে ধস্তাধস্তির ঘটনায় জড়িয়ে লাল কার্ড দেখেন মেসি। চিলির মেদেলও একই ঘটনায় দেখেন লাল কার্ড। অবশ্য মেসিও ধাক্কা দিয়েছিলেন তাকে।

এমন ঘটনা যে ঘটতো তা বোঝা গিয়েছিল আগে থেকেই। বার বার ফাউলের ঘটনা ঘটাচ্ছিল দুই দলই। শেষ পর্যন্ত সেই ঘটনার নিয়ন্ত্রণে আনতেই রেফারি ১০ জনের দলে পরিণত করেন দুই দলকে। অবশ্য তারা শুরুতে এমন ঘটনায় কেউ মাঠ ছাড়তে রাজি ছিলেন না।

এমন ঘটনায় ২০০৫ সালের পর দ্বিতীয়বারের মতো লাল কার্ড দেখলেন মেসি। তবে দ্বিতীয়ার্ধের ৫৯ মিনিটে পেনাল্টি থেকে একটি গোল শোধ দিয়েছে চিলি।

শেষ পর্যন্ত আর গোল না হওয়ায় গতবারের চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে তৃতীয় স্থান নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হচ্ছে আলবিসেলেস্তোদের।


আরও পড়ুন