ওল্ড ট্রাফোর্ডে ২ ভারতীয় সমর্থক গ্রেফতার!

ম্যানচেস্টারে ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচ দেখতে এসে অপ্রীতিকর এক ঘটনার জন্ম দিলো শিখ সম্প্রদায়ের একদল ভারতীয় সমর্থক। টি-শার্টে ‘পাঞ্জাব রেফারেন্ডাম ২০২০’ আর মুখে খালিস্তানের দাবিতে স্লোগান তুলে ম্যানচেস্টার পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছেন তারা।

গতকাল (মঙ্গলবার) ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে খালিস্তানকে স্বাধীন ভূ-খন্ডের দাবি জানিয়ে টি-শার্টে রাজনৈতিক বার্তা বহন করে নিয়ে আসেন শিখ সম্প্রদায়ের গুটি কয়েক লোক। সেইসঙ্গে স্লোগানও তোলে তারা। এসময় এই ঘটনাকে ঘিরে সৃষ্টি হয় চাঞ্চল্য। শিখদের এমন আচরণে চমকে ওঠে পুরো ওল্ড ট্র্যাফোর্ড স্টেডিয়াম।

খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত বিক্ষোভকারীদের স্টেডিয়াম থেকে বের করে দেয়। এরপর বৃহত্তর ম্যানচেস্টারের পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, দু’জনকে তারা স্টেডিয়ামে সম্প্রীতির পরিবেশ নষ্ট করার অভিযোগে আটক করে। পরে অবশ্য তাদের ছেড়ে দেয়া হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, গ্রেফতারকৃতরা গত ৩০ জুন বার্মিংহ্যামে অনুষ্ঠিত ভারত-ইংল্যান্ড ম্যাচের দিনেও স্টেডিয়ামে গোলযোগের চেষ্টা করেছিল। সেদিনও নিরাপত্তারক্ষীরা তাদের স্টেডিয়ামে বেশিক্ষণ থাকতে দেননি।

এদিকে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিক্ষোভকারীদের সমর্থনে স্থানীয় আন্দোলনকারীরা বিবৃতি প্রদান করেছেন। শিখদের ওই গোষ্ঠীর পক্ষ থেকে ম্যানচেস্টার পুলিশের আচরণের তীব্র সমালোচনা করেছেন পরমজিৎ সিংহ পাম্মা নামের এক ব্যক্তি।

প্রসঙ্গত, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের ম্যাচে ‘জাস্টিস ফর বেলুচিস্তান’ লেখা ব্যানার বিমানে করে আকাশে উড়ার মতো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার পর লিডসের হেডিংলিতে ভারত-শ্রীলঙ্কা ম্যাচে কাশ্মীর স্বাধীনের দাবিতে ‘জাস্টিস ফর কাশ্মীর’ লেখা ব্যানার উড়তে দেখা যায়।

যার ফলে বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে ভেন্যুর আকাশসীমায় বিমান উড়ার ওপর আইসিসির অনুরোধে নিষেধাজ্ঞা জারি করা করেছে যুক্তরাজ্য। এসব ঘটনার পরও গ্যালারিতে স্বাধীন খালিস্তানের দাবি ওঠার ঘটনা আইসিসিকে মূলত চরম বিব্রতকর অবস্থার মধ্যে ফেলে দিয়েছে। সূত্র : আনন্দবাজার


আরও পড়ুন