খেলার খবর - জুলাই ১৩, ২০১৯

এক নজরে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের রেকর্ডগুলো

আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপ প্রায় শেষ প্রান্তে। এখন বাকি শুধু ফাইনাল ম্যাচ। সেমিফাইনাল পর্যন্ত বিশ্বকাপের এই দ্বাদশ আসর ছিল নানা ঘটনা আর রোমাঞ্চ ভরপুর।

প্রথম পর্বের ৪৫ ম্যাচ শেষে সেমির টিকিট পায় ভারত, অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ড। সেখানেও ছিল নানা অঘটন। ৫ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া ও ফেভারিট ভারতকে হটিয়ে ফাইনালের মঞ্চে জায়গা করে নিয়েছে নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ড। দীর্ঘদিন পর নতুন কোনও দলের হাতে উঠছে বিশ্বসেরার ট্রফি।আসরে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি রান করেছেন ভারতীয় ওপেনার রোহিত শর্মা। দল বিদায় নিলেও ৯ ম্যাচে তার রান ৬৪৮। ৬৪৭ রান করে তার পরের অবস্থানেই আছেন অস্ট্রেলিয়ান ডেভিড ওয়ার্নার। বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দল সেমিফাইনালে না উঠলেও রেকর্ডের পাতায় ঠিকই আছেন সাকিব আল হাসান। ৮ ম্যাচ খেলে তার ব্যাট থেকে এসেছে ৬০৬ রান। সাকিবের পরে চতুর্থ স্থানে আছেন রুট। তার সংগ্রহ ৫৪৯ রান। এক রান কম নিয়ে উইলিয়ামসন আছেন ৫ নম্বরে।

আসরে সেমিফাইনাল পর্ব শেষে দশ ম্যাচ খেলে ২৭ উইকেট নিয়ে সবার ওপরে আছেন অস্ট্রেলিয়ান পেসার মিচেল স্টার্ক। ২০০৭ বিশ্বকাপে ১১ ম্যাচ খেলে ২৬ উইকেট নিয়েছিলেন কিংবদন্তী পেসার গ্লেন ম্যাকগ্রা। এবার ২৭ উইকেট নিয়ে তাকে ছাড়িয়ে গেলেন স্টার্ক। তবে আক্ষেপ, দল যেতে পারলোনা ফাইনালের মঞ্চে। আফসোস বাংলার ক্রীড়াপ্রেমীদেরও। ২০ উইকেট নিয়ে তার পরের অবস্থানটাই দখলে রেখেছেন মোস্তাফিজ। কিন্তু আসরে নেই তার দল। আসরে আলো ছড়ানো আর্চারের সংগ্রহ ১৯ উইকেট। এছাড়া ফার্গুসন ও বুমরাহ নিয়েছেন ১৮টি করে উইকেট।

আসরে সবচেয়ে বেশি দশ ম্যাচে ২২টি ছক্কা হাঁকিয়েছেন ইয়ন মর্গান। ফিঞ্চ ছক্কা মেরেছেন ১৮টি। ১৪টি ছক্কা হাঁকিয়েছেন রোহিত শর্মা।

আসরে রেকর্ড ৫টি সেঞ্চুরি করেছেন রোহিত শর্মা। সাঙ্গাকারার ৪ সেঞ্চুরির রেকর্ড ভেঙ্গে এ আসরে নতুন কীর্তি গড়েছেন রোহিত। ৩ সেঞ্চুরি নিয়ে তার পরের অবস্থানেই আছেন ডেভিড ওয়ার্নার। ২টি সেঞ্চুরি করেছেন সাকিব আল হাসান।

বিশ্বকাপে সেমিফাইনাল শেষে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় ব্যবধানে রানের দিক থেকে জয় পেয়েছে ইংল্যান্ড। আফগানিস্তানকে ১৫০ রানে হারিয়েছে তারা। উইকেটের দিক থেকে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১০ উইকেটের জয় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি ব্যবধানে জয়ের রেকর্ড।


আরও পড়ুন