জাতীয় - জুলাই ১৬, ২০১৯

কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় আহত সার্জেন্টের মৃত্যু

বরিশালে একটি বেপরোয়া গতির কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় আহত ট্রাফিক সার্জেন্ট গোলাম কিবরিয়া মারা গেছেন।

মঙ্গলবার বেলা পৌনে ১১টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

গোলাম কিবরিয়া (২৯) বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশে কর্মরত ছিলেন। তার বাড়ি পটুয়াখালী জেলায়।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানান, সোমবার গুরুতর আহত বাচ্চু মিয়াকে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে হাসপাতালে ভর্তি করোনো হয়। অবস্থা আশঙ্কাজনক থাকায় তাকে আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। কিবরিয়ার মরদেহ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে সোমবার বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় কর্নকাঠী জিরো পয়েন্টে বরিশাল-পটুয়াখালী মহাসড়কে দায়িত্ব পালন করছিলেন সার্জেন্ট গোলাম কিবরিয়া। দুপুর সোয়া ১২টার দিকে পটুয়াখালীগামী একটি বেপরোয়া গতির কাভার্ডভ্যানকে থামার সংকেত দেন তিনি।

সংকেত অমান্য করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন কাভার্ডভ্যান চালক। এ সময় সার্জেন্ট কিবরিয়া একটি মোটরসাইকেলে ধাওয়া করে কাভার্ডভ্যানের সামনে গিয়ে ফের থামার সংকেত দেন। কিন্তু চালক জলিল মিয়া না থেমে সার্জেন্ট কিবরিয়াকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে পালিয়ে যান।

এতে সার্জেন্ট কিবরিয়া গুরুতর আহত হন। দুই পায়ের চারটি স্থান ভেঙে যাওয়া ছাড়াও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত পান তিনি।

স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে শেরে বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। কিন্তু অবস্থার অবনতি হওয়ায় বিকেল ৫টার দিকে একটি বিশেষ এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে তাকে রাজধানীতে নিয়ে এসে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এদিকে ঝালকাঠির নলছিটি থানা পুলিশ ধাওয়া করে ওই কাভার্ডভ্যানসহ চালক জলিল সিকদারকে আটক করে। জলিল মিয়ার বাড়ি টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে।


আরও পড়ুন