দেশের খবর - জুলাই ১৬, ২০১৯

পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলি চলাকালে পদ্মায় ডুবে মরলো মাদক ব্যবসায়ী

রাজশাহীতে পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলি চলাকালে পালাতে গিয়ে পদ্মায় ডুবে আল আমিন (৩৫) নামে এক মাদক ব্যবসায়ী মারা গেছেন। মঙ্গলবার ভোররাতে নগরীর কাশিয়াডাঙ্গা থানাধীন পদ্মার ৫ নম্বর টি-গ্রোয়েন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আল আমিন নগরীর হাড়ুপুর এলাকার মোহন লালের ছেলে। তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৫টিসহ ছয়টি মামলা রয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটারগান, দুই রাউন্ড গুলি ও ৭৯ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধারের কথা জানিয়েছে পুলিশ।

নগর পুলিশের মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ভোররাত সাড়ে ৩টার দিকে পদ্মা নদীর ৫ নম্বর গ্রোয়েন এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযানে যায় নগরীর কাশিয়াডাঙ্গা থানা পুলিশ। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ওই সময় একদল মাদক ব্যবসায়ী গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষায় পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। গোলাগুলি চলাকালে অন্যরা পালিয়ে গেলেও পদ্মায় ঝাঁপ দেন এক মাদক ব্যবসায়ী। পরে নদী থেকে তার অচেতন দেহ উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নেয়া হয়। এ সময় জরুরি বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে মরদেহ সেখানকার মর্গে নেয়া হয়।

তিনি আরও বলেন, ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটারগান, দুই রাউন্ড গুলি ও ৭৯ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় কাশিয়াডাঙ্গা থানা পুলিশের এসআই রাশেদুল ইসলাম, মোহাম্মদ আলী ও আবদুল মতিন আহত হয়েছেন। তারা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। এ নিয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।


আরও পড়ুন