দেশের খবর - জুলাই ১৭, ২০১৯

ভালুকায় কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগ

ময়মনসিংহের ভালুকায় এক ট্রাক ড্রাইভার কর্তৃক এক কিশোরী মিল শ্রমিককে(১৪) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার বাটাজোর গ্রামে। এ ঘটনায় মডেল থানায় মামলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা (নং- ৩০) দায়ের করা হয়েছে।

অভিযোগে জানা যায়, উপজেলার বাটাজোর পশ্চিমপাড়ার অটোচালক মুঞ্জু মিয়া ও তামাট গ্রামের ট্রাকচালক শাহাদত হোসেন পরিবার নিয়ে বাটাজোর খলিলুর রহমানের বাড়িতে ভাড়ায় বসবাস করে আসছেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মুঞ্জু মিয়ার কিশোরী মেয়ে উপজেলার মাষ্টারবাড়িস্থ আরিফ টেক্সটাইল মিলের শ্রমিককে তার ঘরে ঢুকে ট্রাকচালক শাহাদত হোসেন সবার অজান্তে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এ সময়
মেয়েটির ডাক চিৎকারে পরিবারের লোকজন ছুটে গেলে শাহাদত পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় মেয়েটি বাদি হয়ে ভালুকা মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা (নং: ৩০) দায়ের করেছে।

নির্যাতণের শিকার মেয়েটি জানায়, ‘একই বাসার ভাড়াটিয়া শাহাদত হোসেন তাকে ঘরে একা পেয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়’।

নির্যাতণের শিকার মেয়েটির মা হাসিনা আক্তার জানান, ‘ট্রাকচালক শাহাদত একই বাসায় ভাড়ায় থাকে। ঘটনার সময় আমি অন্য ঘরে ছিলাম। পরে মেয়ের ডাক চিৎকারে ছুটে গেলে শাহদত আমার সামনে দিয়ে পালিয়ে যায়’।

ভালুকা মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন জানান, ‘ধর্ষণ চেষ্টা ঘটনায় নির্যাতণের শিকার মেয়েটি বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেছে এবং এ ঘটনায় অভিযুক্তকে ব্যক্তিকে গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে’।


আরও পড়ুন