জাতীয় - 4 weeks ago

ছেলেধরা গুজবের বিরুদ্ধে সরকারের কঠোর হুঁশিয়ারি

সন্দেহজনক বা গুজবের ছড়িয়ে কোনও মানুষকে পিটিয়ে হত্যার বিরুদ্ধে কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে সরকার। সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন এলাকায় ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে একাধিক হত্যার ঘটনা ঘটেছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে  সোমবার (২২ জুলাই) সরকার হুঁশিয়ারি দিয়ে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে। এতে বলা হয়, এ ধরনের ঘটনা হবে শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

সরকারি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, একটি স্বার্থান্বেষী মহল গুজব ছড়িয়ে ছেলেধরা সন্দেহে নিরীহ মানুষ পিটিয়ে হতাহত সংক্রান্ত খবরের প্রতি সরকারের দৃষ্টি আকৃষ্ট হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত যেকোনও ধরনের গুজব ছড়ানো ও আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়া দেশের প্রচলিত আইনের পরিপন্থি এবং গুরুতর দণ্ডনীয় অপরাধ। কোনও বিষয়ে কাউকে সন্দেহজনক মনে হলে নিজের হাতে আইন তুলে না নিয়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে জানাতে অনুরোধ জানানো হয়েছে। এ ধরনের পরিস্থিতিতে ৯৯৯ নম্বরে কল করে পুলিশের সহায়তা নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

এ দিকে দু’দিন আগে রাজধানী ঢাকার বাড্ডা এলকায় ছেলেধরা সন্দেহে এক নারীকে পিটিয়ে মারার ঘটনায় পুলিশ চার জনকে গ্রেফতার করেছে। আদালত তাদের তিন জনের প্রত্যেককে চার দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছে।  

এ ধরনের ঘটনা প্রতিরোধে এবং আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশ সদর দফতর থেকে সারাদেশে থানাসহ সব পুলিশ অফিসে অভ্যন্তরীণ সার্কুলার জারি করেছে। সব পুলিশ ইউনিটকে টহল জোরদার এবং সব বিদ্যালয়ের সামনে প্রহরা জোরদার ও স্কুল শিক্ষক, সরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও অভিভাবকদের সঙ্গে পৃথক বৈঠক করার পরামর্শ দেওয়া হয়। এতে স্কুল ছুটির পর ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবকদের সঙ্গে বাড়ি ফিরে যাওয়া নিশ্চিত করার ব্যবস্থা নিতে স্কুল কর্তৃপক্ষকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। খবর- বাসস।


আরও পড়ুন