ভৈরব - আগস্ট ২, ২০১৯

কিশোরগঞ্জে ডেঙ্গুতে স্কুলছাত্রের মৃত্যু

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মো. হামজা (১২) নামে এক স্কুলছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৫টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তার মৃত্যু হয়।

মৃত স্কুলছাত্র হামজা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সরাইল উপজেলার নরসিংপুর গ্রামের ইসরাইল মিয়ার ছেলে। সে সরাইল উপজেলার রাঙ্গুরিপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্র ছিল।

হামজার চাচা হাবিব মিয়া জানান, বুধবার রাত থেকে হামজার প্রচন্ড জ্বর ওঠে এবং কয়েকবার বমি হয়। পরে বৃহস্পতিবার সারাদিন সে জ্বরে ভোগার পর অবস্থার কোনো উন্নতি না দেখে বিকেলে আমরা হামজাকে ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে হামজাকে চিকিৎসার দায়িত্বে থাকা ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. রিয়াসাদ আজিম জানান, আমাদের এখানে যখন রোগীকে নিয়ে আসা হয়, তখন রোগী অচেতন অবস্থায় ছিল। এমনকি তার শরীরে পালস পাওয়া যাচ্ছিল না। তখন আমরা তাকে স্যালাইন দেই। আর তার কিছুক্ষনের মধ্যেই রোগী মারা যান।

এ বিষয়ে ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. বুলবুল আহমেদ জানান, গত এক সপ্তাহে ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন প্রাইভেট হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগে অন্তত ৩০ জন রোগী চিকিৎসা নিয়েছেন। বর্তমানে এ রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে আরও ৫ জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তবে এনএসওয়ান স্ট্রীপ না থাকায় রক্ত পরীক্ষার মাধ্যমে এ রোগ সনাক্ত করা হচ্ছে। এনএসওয়ান স্ট্রীপ যন্ত্র পেলে আরও দ্রুত এ রোগ সনাক্ত করা সম্ভব হবে।


আরও পড়ুন