অর্থনীতি - আগস্ট ৩, ২০১৯

সেবা খাতে রপ্তানি বেড়েছে ৪৬ শতাংশ

গত ২০১৮-১৯ অর্থবছরে সেবা খাতের রপ্তানিতে বড়ো প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে বাংলাদেশ। আলোচ্য সময়ে ৬৩৩ কোটি ৮৬ লাখ মার্কিন ডলারের সমপরিমাণ সেবা রপ্তানি হয়েছে, যা এর আগের অর্থবছরের চেয়ে প্রায় ৪৬ শতাংশ বেশি। রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) প্রকাশিত হালনাগাদ পরিসংখ্যানে এ তথ্য জানা গেছে।

গত তিন বছর ধরে মোট রপ্তানিতে সেবা খাতের রপ্তানিকে হিসাবভুক্ত করা হয়। এর আগে এসব রপ্তানি জাতীয় রপ্তানিতে হিসাবভুক্ত হতো না। সেবা খাত মূল রপ্তানির হিসেবে যুক্ত হওয়ায় রপ্তানি আয় বেশি দেখা যাচ্ছে। ২০১৭-১৮ অর্থবছরে পণ্য রপ্তানি হয়েছে ৩ হাজার ৬৬৬ কোটি ৮১ লাখ ডলারের। সেবা খাতে রপ্তানি হয়েছে আরো ৪৩৩ কোটি ৯৭ লাখ ডলার। সব মিলিয়ে আলোচ্য সময়ে মোট রপ্তানি হয়েছিল ৪ হাজার ১শ’ কোটি ডলারের পণ্য। আর গত ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ৩ হাজার ৯০০ কোটি ডলারের পণ্য ও ৫শ’ কোটি ডলারের সেবাসহ সবমিলিয়ে ৪ হাজার ৪০০ কোটি ডলারের রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করা হয়।

অর্থবছর শেষে হিসাবে দেখা গেছে, আলোচ্য সময়ে পণ্য রপ্তানি করে বাংলাদেশ ৪ হাজার ৫৪ কোটি ৫০ ডলার আয় করেছে যা, পূর্বের অর্থবছরের চেয়ে ১০ দশমিক ৫৫ শতাংশ বেশি। পণ্য ও সেবা মিলিয়ে বাংলাদেশের মোট রপ্তানি হয়েছে ৪ হাজার ৬৮৭ কোটি ডলার, যা পূর্বের অর্থবছরের চেয়ে ৫৮৬ কোটি ডলার বা ১৪ দশমিক ২২ শতাংশ বেশি।

সেবা খাতের রপ্তানির তালিকায় রয়েছে মূলত সরকারি পণ্য ও সেবা (যা পণ্য রপ্তানির পরিসংখ্যানে হিসাবভুক্ত হতো না)। এর বাইরে রপ্তানির তালিকায় রয়েছে টেলিযোগাযোগ ও তথ্য সেবা, আর্থিক সেবা, নির্মাণ, যাতায়াত, পরিবহনসহ মোট ১২ ধরনের সেবা।


আরও পড়ুন