খেলার খবর - আগস্ট ২৫, ২০১৯

সকাল থেকে দুপুর গড়িয়ে বিকেল নামার সময়ও নেটে সাকিব!

হজব্রত পালন শেষে মাকে মাগুরা রেখে উড়ে গিয়েছিলেন যুক্তরাষ্ট্র; স্ত্রী শিশির ও কন্যা আলাইনার কাছে। তাদের নিয়ে শনিবার ভোর হবার আগে (শুক্রবার দিবাগত রাত তিনটায়) ঢাকায় পা রেখেছেন সাকিব আল হাসান।

কয়েকঘণ্টা পর শনিবার দুপুর গড়ানোর আগেই প্র্যাকটিসে চলে আসবেন, ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খানের সাথে মিটিং, নতুন কোচের সাথে পরিচিত হওয়া দল ও লক্ষ্য-পরিকল্পনা এবং কৌশল নিয়ে কথাবার্তা বলার পর হালকা অনুশীলনও করবেন- তা ভাবেননি কেউই। সবারই ধারণা ছিল অন্তত দিন দুই বিশ্রাম নিয়ে হয়তো সোমবার নাগাদ প্র্যাকটিস শুরু করবেন সাকিব।

কিন্তু সব ধারণা অমূলক প্রমাণ করে এবার দেখা মিলছে এক অন্য সাকিবের! যে সাকিব অনেক বেশি সিরিয়াস, মনোযোগী এবং অনেক বেশি সময় ধরে অনুশীলনে।

আজ (রোববার) শেরে বাংলায় দেখা মিললো সেই সাকিবের। যিনি সেন্টার উইকেটে তিন দফায় প্রায় দুই ঘণ্টার বেশি সময় ধরে নেটে ব্যাটিং প্র্যাকটিস করলেন। সকাল ১০টায় বাংলাদেশের অনুশীলন শুরুর পর সাকিবের প্রথম গন্তব্য ছিল একাডেমির জিম। সেখানে আধঘণ্টার বেশি সময় ঘাম ঝরিয়ে ঘড়ির কাঁটা ১১টা ছুঁতেই ব্যাট হাতে নেমে পড়লেন শেরে বাংলার সেন্টার উইকেটে।

প্রথমবারে একটানা প্রায় ঘণ্টাখানেক। তারপর ১০-১৫ মিনিট ড্রেসিংরুমে বিশ্রাম। এরপর আবার নেটে চলে যাওয়া এবং আরও টানা ৩০ মিনিটের বেশি সেখানেই কাটানো। এটাই শেষ নয়। লাঞ্চে ড্রেসিংরুমে এসে দুপুরের খাবার খেয়ে আবার নেটে যাওয়া এবং আরও অনেকটা সময় ব্যাটিংটা ঝালিয়ে নেয়া।

এমন নয় সাকিব অনুশীলন কম করেন। সাকিব নিজের কাজটুকু সবসময়ই সর্বোচ্চ আন্তরিকতা আর উৎসাহ-উদ্দীপনায় করে থাকেন। কিন্তু এবার হজ ও যুক্তরাষ্ট্র থেকে ফেরার পর গত ৪৮ ঘন্টার সাকিব যে অন্য সাকিব!

আজ শেরে বাংলার গ্র্যান্ডস্ট্যান্ডে সাংবাদিকদের আড্ডায় কে একজন বলেই ফেললেন, একি! এ যে মুশফিকুর রহীমের এক নতুন সংস্করণ। সত্যিই তাই। সাকিব শতভাগের বেশি সিরিয়াস। এত দীর্ঘসময় ধরে সাকিব নেটে ব্যাটিং প্র্যাকটিসে মনোযোগী- কে কবে দেখেছে? তা নিয়েও টাইগারদের প্র্যাকটিস কভার করতে আসা সাংবাদিকদের মধ্যে আলোচনা-পর্যালোচনা।

অনেকেরই প্রশ্ন, তবে কি বিশ্বকাপের পর এবার টেস্টে আফগানিস্তানের সাথেও ব্যাট হাতে দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে চান সাকিব? শেরে বাংলায় প্র্যাকটিসে গভীর মনোযোগী এবং দুই ঘণ্টার বেশি সময় ধরে নেটে কাটানো দেখে অমন প্রশ্ন জাগাই স্বাভাবিক।

বোঝাই যাচ্ছে, সাকিব টেস্টের আগে নিজের ব্যাটিংটাকে ঝালিয়ে নিচ্ছেন। কারণ ৫ জুলাই লর্ডসে পাকিস্তানের সঙ্গে বিশ্বকাপে শেষ ম্যাচ খেলার পর দেড়মাসেরও বেশি সময় পার হয়ে গেছে। গতকাল ২৪ আগস্টের আগপর্যন্ত এ দীর্ঘ সময় আর ক্রিকেট মাঠেই আসা হয়নি তার।

এ বড় গ্যাপ পূরণে যারপরনাই সচেষ্ট সাকিব। ইতিহাস ও পরিসংখ্যান সাক্ষী দিচ্ছে তার বেশি সময়ের প্রস্তুুতি লাগে না। বিশ্বকাপের আগেও দলের সঙ্গে দেশের মাটিতে এক বেলা প্র্যাকটিস না করেও, যুক্তরাজ্যে ব্যাট ও বল হাতে শুধু দলেরই নন, বিশ্বকাপেরই সেরাদের অন্যতম সেরা পারফরমার ছিলেন সাকিব।

এবার হজের পর যুক্তরাষ্ট্র যাওয়া এবং দেশে ফেরার পর আফগানদের সঙ্গে টেস্টের আগে পেয়েছেন মোটে ১০ দিন। এ অল্প কটাদিনকে যতটা সম্ভব ভালমত কাজে লাগানোর প্রাণপন চেষ্টা থাকবে। তার পরিষ্কার ইঙ্গিত আজকে (রোববার) তিন তিনবার সেন্টার উইকেটের নেটে দুই ঘণ্টার বেশি সময় ব্যাট করা। শরীরী অভিব্যক্তি পরিষ্কার বলে দিল বিশ্বকাপে ভাল খেলার এবার টেস্টে ব্যাট হাতে জ্বলে উঠতে দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ সাকিব।


আরও পড়ুন