বিনোদন - আগস্ট ২৯, ২০১৯

বাংলাদেশি সিনেমাকে পুরস্কার দেবে ভারতীয় প্রযোজক সংগঠন

ঢাকায় একটি অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানের আয়োজন করতে চায় প্রযোজক ও পরিবেশকদের সংগঠন ফিল্ম ফেডারেশন অব ইন্ডিয়া। ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে বিনোদনের সম্পর্ক দৃঢ় করতেই এই পদক্ষেপ বলে জানায় সংগঠনটির অ্যাপেক্স বডি।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস তরফে এই খবর জানা যায়। বুধবার ফেডারেশনের সম্পাদক ফিরদৌসাল হাসান জানান, ফেডারেশনের উদ্দেশ বাংলাদেশের চলচ্চিত্র জগতের সঙ্গে সম্পর্কে উন্নতি ও সেই দেশে ভারতের ছবির প্রচার করা।

কলকাতায় এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেন, “এ রকম একটা পরিবেশ তৈরি করতে চাই যেখানে দুই দেশের ছবির ব্যবসা করতে পারে। প্রথম ভারত-বাংলা চলচ্চিত্র পুরস্কার অনুষ্ঠিত হবে ঢাকায়। ২১ অক্টোবর থেকে কাজ শুরু হবে।”

ফিরদৌস আরও বলেন, বাংলাসহ ভারতীয় ছবি বাংলাদেশের মতো প্রতিবেশী দেশে বেশ জনপ্রিয়। কিন্তু সেখানে আমাদের ছবি মুক্তি দেওয়ার উপযুক্ত কাঠামো নেই।

জুরি কমিটিতে একজন প্রযোজক ও একজন সাংবাদিক ছাড়াও পরিচালক গৌতম ঘোষ, অভিনেতা-মন্ত্রী ব্রাত্য বসু, অভিনেত্রী তনুশ্রী চক্রবর্তী থাকছেন। তারা পুরস্কারের জন্য বাংলা ছবি মনোনয়ন করবেন। ভারত ও বাংলাদেশে ১২টি করে ছবি মনোনীত হবে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশের ছবি বিচার করবেন স্থানীয় পরিচালক, সাংবাদিক ও সমালোচকেরা। তবে বাংলা ছাড়াও ভারতের বিভিন্ন আঞ্চলিক ভাষা- তামিল, তেলুগু, মালায়ালম, কন্নড়, মারাঠি, ভোজপুরি, গুজরাতি ও হিন্দি ছবির প্রদর্শনী হবে।

পরিচালক গৌতম ঘোষ উপস্থিত ছিলেন ওই বৈঠকে। তিনি জানান, বেশি পরিমাণ দর্শকের কাছে পৌঁছতে ভারত ও বাংলাদেশের সিনে দুনিয়ায় চালু হলো সিঙ্গেল উইন্ডো সিস্টেম।

যৌথ প্রযোজনার একাধিক সিনেমার এই পরিচালক বলেন, “আমার মনে হয়েছে ভারত ও বাংলাদেশের বাংলা ছবির উদ্‌যাপন একটি মঞ্চে হওয়াটা জরুরি।”

এদিকে ফেডারেশনের সভাপতি বলেন, দুই দেশেই সিঙ্গেল স্ক্রিনের সংখ্যা কমে যাচ্ছে। যা প্রযোজকদের জন্য আশঙ্কার কারণ।


আরও পড়ুন